কানাডায় হিজাবের পক্ষে যুগান্তকারী রায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কানাডার কুইবেক রাজ্যের সুপ্রিম কোর্ট রানিয়া আল-আলাউল নাম্নী এক মুসলিম নারীর হিজাবের পক্ষে এক যুগান্তকারী রায় দিয়েছে। এই নারী তিন বছর আগে কানাডার আরেকটি নিম্ন আদালতের দেয়া নির্দেশের বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন। খবর গ্লোবাল নিউজ ডট কম।

সুপ্রিম কোর্ট ৩ অক্টোবর রানিয়া আল-আলাউল নামক মুসলিম নারীর হিজাবের পক্ষে রায় দেয়। রায়ে বিচারক বলেন, কুইবেকের আইন ধর্মীয় উদ্দেশ্যে পরিধান করা কোনো নারীর মাথা ঢেকে রাখার পোশাকের বিরুদ্ধে যায় না, যদি না তা জনস্বার্থ বিরোধী কোনো কাজে ব্যবহৃত হয়।

জানা গেছে, ২০১৫ সালে কানাডার কুইবেকে বসবাসরত রানিয়া আল-আলাউলের গাড়ি বাজেয়াপ্ত করা হয়। এর বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি। কিন্তু আদালতের বিচারক ইলিয়ানা মারেনগো শুনানির পূর্বে তার হিজাব খুলে ফেলার নির্দেশ দেন। কিন্তু রানিয়া তাতে রাজি হননি। এ পর্যায়ে বিচারক রানিয়া আল-আলাউলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘যদিও মামলাটির শুনানি করা আবশ্যক কিন্তু একই সাথে আপনার পোশাক মামলা শুনানি করার জন্য উপযুক্ত নয়।’ ফলে রানিয়া বিচার পাননি।

এ অন্যায় ঘটনার প্রবিাদে তার নিযুক্ত আইনজীবী নিম্ন আদালতের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে কুইবেকের সুপ্রিম কোর্টে আপীল দায়ের করেন।

কুইবেকের সুপ্রিম কোর্ট ৩ অক্টোবর এ মামলার রায় ঘোষণা করে। রায়ে নিম্ন আদালতের রায়টি বাতিল করে দিয়ে রানিয়া আল-আলাউলকে যথাযথ সুবিচার দিতে অস্বীকার করার সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণা করা হয়। সুপ্রিম কোর্ট একই সাথে রানিয়া আল-আলাউলের নিজস্ব ধর্ম বিশ্বাস অনুযায়ী পোশাক পরিধানের অধিকার রয়েছে বলে মত দেন।

রানিয়া আল-আলাউলের আবনিজীবী জুলিয়াস গ্রেই বলেন, ‘আমি আদালতের এ দুই সিদ্ধান্তেই সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছি।’

শেয়ার করুন