অসুস্থ সুমানার চিকিৎসায় মঙ্গলবার পর্যন্ত সংগ্রহ ১ লাখ ২৭ হাজার ৭২০ টাকা

সিলেটের সকাল রিপোর্ট:কিছুদিন আগেও দুটি কিডনী বিকল হয়ে যাওয়া সুমানার চোখে মুখে ছিলো দীর্ঘশ্বাস। সে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থী। আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে অনেকটা ভেঙ্গে পড়েছিলো মেয়েটি। বিনা চিকিৎসায় বিছানায় থেকে থেকে এক পর্যায়ে মেয়েটি হারিয়ে ফেলেছিলো জীবনের প্রতি সকল আশা। কিন্তু সুমানা আশা হারিয়ে ফেললেও সমাজের বিবেকবান মানুষগুলো তাকে আশাহত হতে দেননি। তারা অসহায় মেয়েটির বেঁচে থাকার পক্ষে দাঁড়িয়েছেন। বাড়িয়ে দিয়েছেন মমতার হাত।
গত রোববার সংবাদ মাধ্যমে ‘টাকার অভাবে নিভতে বসেছে মহিলা কলেজ ছাত্রী সুমানার জীবন প্রদীপ’ শীর্ষক সংবাদ প্রকাশের পর গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত এক লক্ষ ২৭ হাজার ৭২০ টাকা উঠেছে। এর মধ্যে নগরীর মহাজনপট্টির বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জামিল আহমদ এক লক্ষ টাকা, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বয়ো:বৃদ্ধ ২০ হাজার টাকা, বিকাশের মাধ্যমে ১৩ জন ব্যক্তি পাঠিয়েছেন ৭ হাজার ৭২০ টাকা। অচেনা অপরিচিত এই হৃদয়বান মানুষগুলো বাসায় গিয়ে অসুস্থ সুমানাকে দেখে আসছেন, সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। যাদের সাহায্য করার সামর্থ্য নেই সেই মানুষগুলো মেয়েটির জন্য দোয়া মানত করে আসছেন। বিপদগ্রস্ত একটি মেয়ের পাশে মানুষের এই মমতা শুধু সুমানাকে নয়, পুরো পরিবারকে উজ্জীবিত করছে। এর মধ্য দিয়ে আবারো প্রমাণিত হচ্ছে ‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য।’ চব্বিশ বছরের সুমানার দুটি কিডনিই বিকল হয়ে গেছে। এ অবস্থায় প্রতি সপ্তাহে দু’দিন ডায়ালাইসিস দিতে হচ্ছে। চিকিৎসকরা বলছেন, কিডনী প্রতিস্থাপন ছাড়া মেয়েটিকে বাঁচিয়ে রাখার আর কোনো পথ নেই। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেটি করতে হবে। এর জন্য প্রয়োজন হবে অন্তত ত্রিশ লক্ষ টাকা। কিন্তু চিকিৎসার ব্যয়ভার মেটানোর ক্ষমতা পরিবারটির নেই। তাই মেয়েটি এখন শয্যাশায়ী। শারীরিক যন্ত্রণা, নিজের অবস্থা, পরিবারিক অসচ্ছলতা-সব মিলিয়ে নানা দুশ্চিন্তায় তার চলাফেরা প্রায় বন্ধ। সারাদিন বিছানার মধ্যেই বন্দী তার স্বপ্ন। নগরীর ১২ নম্বর ওয়ার্ডের কুয়ারপাড় ঈঙ্গুলাল রোডের বাসিন্দা এখলাছুর রহমানের মেয়ে সুমানা আক্তার। নিতান্ত গরিব পরিবারের এই মেয়েটির প্রতি মাসে ডায়ালাইসিস ও ওষুধ বাবত পঞ্চাশ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে। বর্তমানে ওষুধের টাকা যোগাড় করছেন স্বজনরা, প্রতিবেশীরা, হৃদয়বানরা। জীবনের এই দু:সময়ে সুমনার পাশে দাঁড়াচ্ছেন সিলেটের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। তারা অসহায় মেয়েটির চিকিৎসায় সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। মেয়েটিকে বাঁচাতে সাহায্য করুন-সুমনা আক্তার, হিসাব নম্বর ০০১২৭০০০০০১০৯, সাউথ ইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, লালদিঘীরপার শাখা, সিলেট। এছাড়া কেউ চাইলে সরাসরি সাহায্য করতে পারবে বিকাশ (০১৭১২-০৭৯৫৬৮) নম্বরে।
এদিকে, সুমনার সুচিকিৎসার জন্য সম্প্রতি কুয়ারপাড়, লালাদিঘীর পাড় ও শেখঘাট এলাকার মানুষের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় যাতে তার চিকিৎসা তহবিল গঠন করা যায় এ লক্ষ্যে এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবক মিজান আজিজ চৌধুরী সুইটকে আহবায়ক ও গিয়াস উদ্দিনকে সদস্য সচিব করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন