১৭৩ রানে অলআউট বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক:: টপ অর্ডার ব্যর্থ, পারেনি মিডল অর্ডারও। ভারতের বিপক্ষে দিশেহারা বাংলাদেশ জ্বলে উঠলো লোয়ার অর্ডারে। যেখানে মেহদী হাসান মিরাজ ও মাশরাফি বিন মুর্তজার দুটো সময় উপযোগী ইনিংস না থাকলে চরম লজ্জাতেই পড়তে হতো বাংলাদেশকে। ৪৯.১ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে টাইগাররা করেছে ১৭৩ রান।

সত্যিকারের অলরাউন্ডার হয়ে সামনে এলেন এবার মেহেদী হাসান মিরাজ। এতদিন দিন বল হাতে দাপট দেখানো এই অলরাউন্ডার দলের প্রয়োজনের সময় জ্বলে উঠলেন হাতে। তার চমৎকার ব্যাটিংয়েই বাংলাদেশের স্কোর অতদূর পর্যন্ত গিয়েছে। নয় নম্বরে নেমে খেলেছেন তিনি কার্যকরী ৪২ রানের ইনিংস। ৫০ বলের ইনিংসটি সাজিয়েছেন ২ চার ও ২ ছক্কায়।

অষ্টম উইকেটে মাশরাফির সঙ্গে মিরাজের গড়া ৬৬ রানের জুটিটাই ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ ম্যাচের হাইলাইট। বাংলাদেশ অধিনায়কের অবদানও কম নয় সেখানে, ৩২ বলে তিনি ২ ছক্কায় করেছেন ২৬ রান।

ভুল সিদ্ধান্তের শিকার মাহমুদউল্লাহ

ভুবনেশ্বর কুমারের এলবিডাব্লিউয়ের আবেদনে আঙুল তুলে দিলেন আম্পায়ার। যদিও টিভি রিপ্লেতে স্পষ্ট দেখা গেছে বলটি মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে ছোঁয়া লেগে এরপর আঘাত করেছে তার প্যাডে। তাই ভুল আউটের শিকার হলেন বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান। তার বিদায়ের পর মোসাদ্দেক হোসেন ফিরে গেলে বাংলাদেশ হারায় ৭ উইকেট।

মোহাম্মদ মিঠুন ডিআরএস নিয়ে আগেই নির্ধারিত একটি রিভিউ শেষ করে গিয়েছিলেন। তাই বল ব্যাটে লেগেছে জানার পরও রিভিউ নিতে পারলেন না মাহমুদউল্লাহ। ভুবনেশ্বর কুমারের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে শেষ হয়ে যায় তার ২৫ রানে ইনিংসটি। ৫১ বলের ধৈর্যশীল ইনিংসে তিনি মেরেছেন তিনটি বাউন্ডারি।

তার আউটের পর মোসাদ্দেক হোসেনও ধরেন প্যাভিলিয়নের পথ। রবীন্দ্র জাদেজার চতুর্থ শিকার হয়ে উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনির গ্ল্যাভসে ধরা পড়েন ১২ রান করে।

মুশফিককে হারিয়ে বিপদ বাড়লো

ভালো শুরু করেও ইনিংস লম্বা করতে পারলেন না মুশফিকুর রহিম। এক ম্যাচ বিশ্রামে থেকে ভারতের বিপক্ষে ফেরা এই ব্যাটসম্যানের আউটে বিপদ আরও বাড়লো বাংলাদেশের। আর বিদায়ের আগে মোহাম্মদ মিঠুনের আউটে বাংলাদেশ হারায় ৫ উইকেটে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চরম বিপদের সময় হাল ধরেছিলেন মুশফিক। চমৎকার সেঞ্চুরিতে দলের জয়ের পথে রেখেছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। ভারতের বিপক্ষেও প্রায় একই রকম অবস্থায় ক্রিজে আসেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। চমৎকার ব্যাটিংয়ে দলকে এগিয়েও নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। তবে এবার বেশিদূর যেতে পারলেন না। রবীন্দ্র জাদেজার বলে যুজবেন্দ্র চাহালের হাতে ধরে পড়েন ২১ রান করে।

তার আউটের কিছু সময় আগেই বাংলাদেশ হারায় মোহাম্মদ মিঠুনের উইকেট। টানা দুই ম্যাচে ব্যর্থ তার ব্যাট। আফগানিস্তানের পর ভারতের বিপক্ষেও কিছু করতে পারলেন না তিনি। সেই জাদেজার বলেই এলবিডাব্লিউ হয়ে ফিরে গেছেন তিনি ৯ রান করে।

টানা দুই বলে চার মেরে সাকিবের বিদায়

টানা দুই বলে বাউন্ডারি মারার পর আবারও বিগ শট খেলতে গিয়ে ভুল করে বসলেন সাকিব আল হাসান। যে ভুলে বাংলাদেশ হারায় তৃতীয় উইকেট।

অতিরিক্ত আক্রমণাত্মক হওয়ার খেসারত দিতে হলো সাকিবকে। রবীন্দ্র জাদেজার টানা দুই বলে দুই চার মারার পরের বলটাও লেগ সাইড দিয়ে সীমানাছাড়া করতে চেয়েছিলেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। কিন্তু ব্যাটে-বলে ঠিকঠাক হলো না। শর্ট লেগে ধরা পড়েন তিনি শিখর ধাওয়ানের হাতে। যাওয়ার আগে ১২ বলে ৩ বাউন্ডারিতে করে যান ১৭ রান।

শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারালো বাংলাদেশ

ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে বেরোতে পারলেন না লিটন দাস। আবারও হতাশ করেছেন তিনি। তার বিদায়ের পর আরেক ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্তও ফিরে গেছেন দ্রুত।

এশিয়া কাপে ওপেনিং দিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে নতুন যাত্রা শুরু করেছিলেন লিটন। যদিও সুবর্ণ সুযোগটা একেবারেই কাজে লাগাতে পারলেন না তিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শূন্য রানের পর আফগানিস্তানের বিপক্ষে করেন ৬ রান। ভারতের বিপক্ষেও একই হাল এই ওপেনারের। মাত্র ৭ রান করে ফিরে গেছেন তিনি। ভুবনেশ্বর কুমারের শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে ধরা পড়েন কেদার যাদবের হাতে।

লিটনের মতো একই অবস্থা তার ওপেনিং সঙ্গী নজামুল হোসেন শান্তর। তামিম ইকবালের ইনজুরিতে পাওয়া সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি তিনি আফগানদের বিপক্ষে অভিষেক ওয়ানডেতে। তবে ভারতের বিপক্ষে পেয়েছিলেন আরেকটি সুযোগ। যদিও এবারও ব্যর্থ ২০ বছর বয়সী তরুণ। লিটনের আউটের পরপরই জসপ্রিৎ বুমরাহর শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মাত্র ৭ রান করে।

ভারতের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

এশিয়া কাপের সুপার ফোরে ভারতের মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। শুক্রবার দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামের এই ম্যাচে ভারত টস জিতে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে বাংলাদেশকে।

বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলার পরদিনই আবার মাঠে নামতে হয়েছে বাংলাদেশকে। টানা দুদিন খেলার ধকল সামলানোও টাইগারদের জন্য চ্যালেঞ্জের। তাছাড়া আফগানদের বিপক্ষে হেরে যাওয়ার ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার ব্যাপার তো থাকছেই ভারতের বিপক্ষে।

আফগানিস্তান ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল মুশফিকুর রহিমকে। ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ফিরেছেন সেঞ্চুরি দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু করা এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। তিনি ফেরায় একাদশে জায়গা হারিয়েছেন মুমিনুল হক। পরিবর্তন আছে আরও একটি। আফগানদের বিপক্ষে অভিষেকে বল হাতে আলো ছড়ানো আবু হায়দারের জায়গা হয়নি একাদশে। বিশ্রামে থাকা মোস্তাফিজুর রহমান ফেরায় কপাল পুড়ছে এই পেসারের।

ভারতের একাদশে একটি পরিবর্তন প্রত্যাশিতই ছিল। পাকিস্তানের বিপক্ষে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে চলে যাওয়া হার্দিক পান্ডিয়ার টুর্নামেন্টই শেষ হয়ে গেছে। তার জায়গায় বাংলাদেশের বিপক্ষে একাদশে জায়গা পেয়েছেন আরেক অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা।

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান।

ভারত একাদশ: রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, আম্বাতি রাইডু, দিনেশ কার্তিক, মহেন্দ্র সিং ধোনি, কেদার যাদব, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, কুলদীপ যাদব, জসপ্রিৎ বুমরাহ, যুজবেন্দ্র চাহাল।

শেয়ার করুন