শাবিতে চ্যারিটি বইমেলা শুরু

শাবি প্রতিনিধি:: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্বপ্নোত্থান’র আয়োজনে ১২দিনব্যাপী চ্যারিটি ‘স্বপ্নোত্থান বইমেলা-২০১৮’ শুরু হয়েছে।   মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জুন তলায় এই ‘স্বপ্নোত্থান বইমেলা ২০১৮’ এর উদ্বোধন করেন শাবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

এসময় সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক আমিনা পারভীন, গণিত বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আনোয়ারুল ইসলাম দিপু, ফরাসি ভাষা শিক্ষার প্রভাষক রিয়াদুল ইসলাম সোহেল, সংগঠনের সভাপতি মাহদীন আল নাফি, সাধারণ সম্পাদক রিজওয়ানুর রহমান পলাশসহ সাবেক এবং বর্তমান সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদ আয়োজন সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলেন, সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে স্বপ্নোত্থানের বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড প্রশংসার দাবি রাখে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ ধরনের গঠন মুলক কার্যক্রমকে সব সময় উৎসাহিত করছে এবং করবে।

প্রথমবারের মত এককভাবে ‘স্বপ্নোত্থান’ শাবিতে এই বইমেলার আয়োজন করেছে। ‘স্বপ্নোত্থান বইমেলা-২০১৮’তে মোট ১৭টি প্রকাশনীর স্টল বসেছে। এসব স্টলে সব বইয়ের উপর সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ পর্যন্ত মূল্য ছাড় আছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জুনতলায় শনি থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এবং শুক্রবার বেলা ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এই বই মেলা চলবে। বইমেলা থেকে উপার্জিত অর্থ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পিছনে ব্যয় করা হবে। ১২ দিনব্যাপী এই চ্যারিটি বইমেলা শেষ হবে আগামী ৬ অক্টোবর।

চ্যারিটি বইমেলা সম্পর্কে মেলার আয়োজক স্বপ্নোত্থান সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রিজওয়ান পলাশ বলেন, এককভাবে এবারের আমাদের প্রথম বইমেলার আয়োজন। আমাদের এই বইমেলা থেকে উপার্জিত অর্থ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য ব্যয় হবে।

উল্লেখ্য, নানা ধরণের স্বেচ্ছাসেবী কাজের মধ্য দিয়ে অসহায় এবং সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে ২০০৭ সাল থেকে কাজ করে যাচ্ছে স্বপ্নোত্থান।

শেয়ার করুন