লিটনের সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২২২ রান

স্পোর্টস ডেস্ক:: এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশের ওপেনিং জুটির কাছে পাত্তাই পায়নি ভারতীয় বোলাররা। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে রীতিমতো ঝড় তুলে টাইগার ওপেনার। ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশত তুলে নেন টাইগার ওপেনার লিটন দাস। আর তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন প্রথমবারের মতো ওপেনে নামা মেহেদি হাসান মিরাজ। তিনি ৩২ রান করে যাদবের বলে আউট হয়ে টাইগারদের ওপেনিং জুটি ভাংগে।

লিটন দাসের সেঞ্চুরির উপর ভর করে ২২২ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১২১ রান করেন লিটন দাস। এছাড়া ৩৩ রান করেন সৌম্য সরকার। ৩২ রান করেন মেহেদি হাসান মিরাজ। বোলিং এবং ফিল্ডিংয়ে নিজেদের সেরাটা দিতে পারলে প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের শিরোপা জিততে পারবে বাংলাদেশ।আর যদি তা না হয় সপ্তমবারের মতো শিরোপা নিজেদের করে নেবে ভারত।

ওপেনিং জুটিতে ১২০ রান করার পর একটা সময় মনে হয়েছিল বাংলাদেশ আজ তিনশ’ ছাড়িয়ে যাবে। কিন্তু মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিং এবং বিতর্কিত আম্পায়রিংয়ের কারণে শেষ ৪৮.৩ ওভারে পর্যন্ত ২২২ রানেই অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ দল।

ভারতের বিপক্ষে আবারও আম্পায়ারের বাজে আচরণের শিকার হলো বাংলাদেশ। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা লিটন দাসকে কোনোভাবেই যখন ভারতীয় বোলাররা পরাস্ত করতে পারছিল না। চার-ছক্কার ফুলঝুরিতে সেঞ্চুরি করা লিটন দাসের ওপরই সেই খতক নেমে এল।

৪১তম ওভারের শেষ বলে (কুলদীপ যাদবের) এগিয়ে মারতে চেয়েছিলেন লিটন। রিপ্লাইয়ে দেখা গেছে, প্রথম পর্যায়ে পা ঠিক না থাকলেও ধোনি বল স্ট্যাম্পিং করার আগে নিরাপদে পা ছিল লিটন দাসের।

কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে থার্ড আম্পায়ার লিটন দাসকে আউট ঘোষণা করেন।এর আগে উদ্বোধনী জুটিতে লিটন-মিরাজ ১২০ রান সংগ্রহ করেন। এরপর ৩১ রানের ব্যবধানে ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ দল।

মিরাজ ৩২ রান করে আউট হলেও দুই অঙ্কের কোটা পার হতে পারেননি ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরির তুলে নিয়েছেন লিটন কুমার দাস। ভারতের বিপক্ষে এশিয়া কাপের ফাইনালে অসাধারণ ব্যাটিং করছেন এ ওপেনার।

রবিন্দ্র জাদেজাকে স্কয়ার ড্রাইভে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৩৩ বলে ফিফটি তুলে নেন লিটন। এরপর কেদার যাদবকে লং অনে ঠেলে দিয়ে শতরান পূর্ণ করেন। তার ১০০ রানের ইনিংসটি ৮৭ বলে ১১টি চার ও দুটি ছক্কায় সাজানো।

শেয়ার করুন