রাতারগুলে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় মামলা, এলাকাবাসীর মানববন্ধন

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃগোয়াইনঘাট উপজেলার জলারবন রাতারগুল সোয়াম্প ফরেস্ট এলাকায় বনবিভাগের মূর্তা চাষ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় মহিষখেড় গ্রামের ২১ জনের নাম উল্লেখ ও ৩০/৩৫ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে, বন বিভাগের কর্মকর্তাদের ওপর হামলার প্রতিবাদে শনিবার সকাল ১১টায় রাতারগুল এলাকায় মানববন্ধন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে রাতারগুলের বন-বিট কর্মকর্তা প্রদীপ মন্ডল বাদী হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় মামলাটি দায়ের করেন। তবে, এ রিপোর্ট লেখার সময় শুক্রবার রাত পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি থানা পুলিশ।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল জলিল জানিয়েছেন, জড়িতদের আটকে পুলিশের অভিযান চলছে।
এদিকে, ঘটনার পরপরই গ্রেফতার এড়াতে রাতারগুল মহিষখেড় গ্রামটি পুরুষ শূণ্য থাকায় পুরো গ্রামে এখন নীরব-নিস্তব্ধতা বিরাজ করছে।
উল্লেখ্য, সম্প্রতি রাতারগুল বনের দুইপাশে ২০১ একর মূর্তা চাষের জায়গায় বনবিভাগ বনায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করে। বনের পাশে মহিশখেড় এলাকায় ১৩১ একর জমিতে গত মঙ্গলবার সকালে বনবিভাগের ৪৫ জন শ্রমিক ১০ হাজার মূর্তা বেতের গাছ লাগায়। এরপরই মহিষখেড় গ্রামবাসী এ সকল গাছের চারা উপড়ে ফেলে। বুধবার সকালে একই জায়গায় ভূমি প্রশাসন ও পুলিশ নিয়ে বনবিভাগের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আবারও চারা রোপণ করতে যান। এ সময় স্থানীয় মহিষখেড় গ্রামের কতিপয় লোক বন বিভাগের লোকজনের ওপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে উভয়পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে মহিষখেড় গ্রামের তিনজন গুলিবিদ্ধসহ রেঞ্জ কর্মকর্তা ও দু’জন বনরক্ষী আহত হন।

শেয়ার করুন