মুস্তাফিজ নৈপুণ্যে শ্বাসরুদ্ধকর জয় বাংলাদেশের

মিজান আহমদ চৌধুরী :   বাংলাদেশের বিপক্ষে আফগানিস্তানের জিততে হলে শেষ ওভারে দরকার ছিল ৬ বলে মাত্র ৮ রান। টাইগার দলপতি মাশরাফি কাকে দিয়ে করাবেন শেষ ওভারের বল। সে দিকেই সবার দৃষ্টি। শেষ পর্যন্ত মুস্তাফিজের বিশ্বস্ত হাতে তুলে দিলেন বল। মুস্তাফিজ মাশরাফির সেই বিশ্বাস রাখলেন। অবশেষে দলকে জেতালেন ৩ রানে।

এই জয়ের মধ্য দিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল বাংলাদেশ দল। সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে হারাতে পারলে কোনো সমীকরণ ছাড়াই ফাইনালে চলে যাবে বাংলাদেশ।

প্রথমে টস জিতে ব্যাট করে বাংলাদেশ। আফগানদের সামনে ২৫০ রানের লক্ষ্য দাঁড় করায়। দলের হয়ে মাহমুদুল্লাহ ৭৪ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন। এছাড়া ইমরুল কায়েস খেলেন হার না মানা ৭২ রানের ইনিংস। তার আগে অবশ্য বাংলাদেশ দলের শত রানের আগে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ের মুখে পড়ে যায়। সেখান থেকে দলকে বের করে আনেন মাহমুদুল্লাহ এবং কায়েস।

জবাবে ব্যাট করতে নামা আফগানদের শুরুতে ২ উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশ। এরপর শাহজাদ এবং হাসমতউল্লাহ শাহেদি ৬৩ রানের জুটি গড়েন। শাহজাদকে ৫৩ রানে বোল্ড করে জুটি ভাঙেন মাহমুদুল্লাহ। এরপর আবার শাহেদি এবং আসগর আফগান দাঁড়িয়ে যান। শাহেদিকে ৭১ রানে এবং আসগর আফগানকে ৩৯ রানে ফেরান মাশরাফি। শেষ চার ওভারে জয়ের জন্য আফগানদের দরকার ছিল ৪২ রান। কিন্তু মুস্তাফিজ-সাকিবরা আফগানিস্তানকে জয়ের বন্দর থেকে ৩ রান আগে বেঁধে ফেলেন ।

বাংলাদেশের হয়ে এ ম্যাচে ১০ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৬২ রানে ২ উইকেট নেন মাশরাফি। এছাড়া মুস্তাফিজ ২ উইকেট এবং মাহমুদুল্লাহ একটি উইকেট নেন। আফগানিস্তানের হয়ে ১০ ওভারে ৫৪ রানে ৩ উইকেট নেন আফতাব আলম। রশিদ খান ও মুজিব উর নেন একটি করে উইকেট।

 

শেয়ার করুন