পাঠ্যপুস্তকে যৌন জ্ঞান অন্তর্ভুক্তির আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর

সিলেটের সকাল ডেস্ক:: যৌন প্রজনন স্বাস্থ্যের সঠিক তথ্য পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভূক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি মনে করেন, পাঠ্যপুস্তকে প্রজনন স্বাস্থ্যের জ্ঞান থাকলে যৌন হয়রানি কমবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এসআরএইচআর (সেক্সুয়াল এন্ড রিপ্রোডাক্টিভ হেল্থ এন্ড রাইটস) বিষয়ে কথা বলা স্কুলে ও পরিবারে প্রায় নিষিদ্ধ বলা যায়। স্কুলের পাঠ্যবইয়েও সচেতনভাবে এই বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়া হয়। এই অবস্থার পরিবর্তন দরকার। কারণ যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার, মানবাধিকারের বিষয়।

বেসরকারি সংস্থা শেয়ার-নেট কর্তৃক এসআরএইচআর বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য আয়োজিত আন্তর্জাতিক নলেজ ফেয়ারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

রোববার রাজধানীর স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে এ ফেয়ার অনুষ্ঠিত হয়। ২০২০-২০৩০ সালের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রায় এসআরএইচআর বিষয়টি সরাসরি যুক্ত। সমাজে ও অর্থনীতিতেও এর প্রভাব রয়েছে। তাই এসআরএইচআর বিষয়ে জ্ঞান বৃদ্ধির মাধ্যমে আমরা পরিবার-পরিকল্পনা, মা ও শিশুর স্বাস্থ্যের বিষয়গুলো নিশ্চিত করতে পারবো।

শেয়ার-নেট বাংলাদেশ যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার বিষয়ক একটি প্ল্যাটফর্ম। সংস্থাটি উন্নয়নশীল দেশগুলাতে এসআরএইচআর ক্ষেত্রে নীতি নির্ধারণে ও সক্রিয় কার্যক্রম গঠনে কাজ করে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশে অবস্থিত নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের ডেপুটি হেড অব মিশন ইযেরুন স্তেইথ।

বিশেষ অতিথি ইয়েরুন স্তেইখস বলেন, যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার নিয়ে কথা বলা খুবই জরুরি। আর এ বিষয়ে সঠিক তথ্য দেওয়ার কাজটা করে আসছে শেয়ার-নেট বাংলাদেশ।

এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে নীতি নির্ধারক, প্রাকটিশনার, গবেষক, ডাক্তারসহ বিভিন্ন পেশার মানুষেরা এক ছাদের নিচে এসে এসআরএইচআর বিষয়ে কথা বলতে পারছে।

শেয়ার করুন