পাঠাওয়ের যাত্রী-চালকের জন্য এক লাখ টাকা পর্যন্ত বিমা

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: এখন থেকে পাঠাওয়ের চালক ও যাত্রীরা বিমা-সুবিধা পাবেন।  রাইড শেয়ারিং অ্যাপ ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তার জন্য আজ মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ সুবিধা চালুর ঘোষণা দিয়েছে পাঠাও বাংলাদেশ।

পাঠাওয়ের কর্মকর্তারা জানান, বিমা-সুবিধা চালু করতে পাঠাও বাংলাদেশ ডটলাইন বাংলাদেশ লিমিটেডের সঙ্গে চুক্তি সই করেছে। এর মাধ্যমে ডটলাইন বাংলাদেশের আইআর ইনস্যুরেন্স ব্র্যান্ড কার্নিভ্যালের অধীনে বিশেষ কাস্টোমাইজ এ বিমা-সুবিধা দেবে।

পাঠাওয়ের প্রধান নির্বাহী হুসেইন এম ইলিয়াস জানান, পাঠাওয়ের ট্রিপ চালু থাকা অবস্থায় কেউ দুর্ঘটনায় পড়লে বা কারও মৃত্যু হলে এ বিমার অর্থ পাওয়া যাবে। পুরো বিমার খরচ বহন করছে পাঠাও। বিমা-সুবিধা হিসেবে ৫০ হাজার থেকে এক লাখ টাকা পাওয়া যাবে। চালক ও ব্যবহারকারী উভয়ই এ ক্ষতিপূরণ দাবি করতে পারবেন।

এ বিমা-সুবিধা নিতে হলে পাঠাও অ্যাপের রিপোর্ট ইস্যু থেকে দুর্ঘটনার বিষয়টি অবহিত করতে হবে। এরপর প্রয়োজনীয় তথ্য অনলাইনে জমা দিলেই হবে। পুরো বিষয়টি পাঠাও যাচাই করে ক্ষতিপূরণ দেবে। তবে দুর্ঘটনার সর্বোচ্চ এক থেকে তিন মাসের মধ্যে এ দাবি করতে হবে।

অনুষ্ঠানে ডটলাইন বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী হাসান মেহেদী, পাঠাও লিমিটেডের প্রধান কারিগরি কর্মকর্তা সিফাত আদনান ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কিশোয়ার হাশমি উপস্থিত ছিলেন।

হুসেইন এম ইলিয়াস বলেন, ‘পাঠাও প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারকারীকে নিরাপদ সেবা দেওয়ার লক্ষ্য আমাদের। দ্রুত এ খাতের জনপ্রিয়তা বেড়ে গেছে। তাই সবাইকে নিরাপদে রাখার দায়িত্ব আমাদের নিতে হবে।’

-তথ্যসূত্র: প্রথমআলো

শেয়ার করুন