ঝিলমিল ঝিলমিল করে রে ময়ূরপঙ্খী নায়…

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি :: ‘কোন মেস্তরি নাও বানাইলো এমন দেখা যায়, ঝিলমিল ঝিলমিল করে রে ময়ূরপঙ্খী নায়’-বাউল আব্দুল করিমের এমন গানের তালে তালে বাজছে বাদ্য। সারি বেধে থাকা নৌকার বৈঠায়ও পড়েছে টান। নানা রকম বাদ্যের তালে আর বৈঠার ছলাৎ ছলাৎ শব্দে একাকার চারিদিক। নদীর তীরে দর্শকদের মাঝেও কমতি সেই আনন্দ আর উল্লাসের। তাদের করতালীতে মুখর হয়ে ওঠে চারপাশ।

রোববার বিকেলে এমনই আনন্দমুখর পরিবেশে সিলেটের সীমান্তবর্তী গোয়াইনঘাটের বেলেংগুড়া এলাকায় গোয়াইন নদীতে অনুষ্ঠিত হয়েছে আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা।

এ প্রতিযোগিতাকে ঘিরে পুরো এলাকা জুড়ে শুরু হয় উৎসবের আমেজ। সকাল থেকেই স্থানীয় এলাকার লোকজন ছাড়াও বিভিন্ন উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কয়েক লক্ষাধিক মানুষ নৌকা বাইচ উপভোগ করতে ভিড় জমায়। প্রতিযোগিতায় সিলেটের বিভিন্ন উপজেলা থেকে ২৫টি নৌকা অংশ নেয়।

নৌকা বাইচ শেষে আয়োজক কমিটির সভাপতি বিলাল মেম্বারের সভাপতিত্বে ও উপজেলা যুবলীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া রাসেল’র পরিচালনায় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মধ্যে পুরুস্কার বিতরণ করেন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মুজিবুর রহমান।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ, গোয়াইনঘাট পেসক্লাব’র সাবেক সভাপতি মনজুর আহমদ, জৈন্তাপুর উপজেলা যুবলীগ নেতা কুতুব উদ্দিন, উপজেলা বিএনপি নেতা আজাদুর রহমান ও জাহাগীর আলম, ইউপি সদস্য সায়েদ আহমদ, শামিম আহমদ, মুদছ্ছির আহমদ, আব্দুর রকিব, আজিজুল ইসলাম, সাবেক ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম ইয়াকুর আলী, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রেজওয়ান রাজিব, দুলাল আহমদ,মাহমুদ আলী,নুর উদ্দিন, ফারুক আহমদ, আয়নুল্লাহ, সাজ্জাদ, বক্কর, নিজাম,বাবুল প্রমুখ।

জৈন্তাপুর উপজেলার উত্তর কাঞ্জর গ্রামের নৌকাকে হারিয়ে জৈন্তাপুর উপজেলার পুর্ব গর্দনা গ্রামের নৌকা চ্যাম্পিয়ন হয়। ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা ১ম পুরস্কার ছিল ১টি ঘোড়া, ২য় পুরস্কার ছিল ১টি গরু, ৩য় পুরস্কার ছিল ১টি খাসি।

শেয়ার করুন