কমনওয়েলথ ফেলোশিপ পেলেন সিলেটের আয়ান

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: ইংল্যান্ডের দ্য রয়্যাল কমনওয়েলথ সোসাইটির ফেলোশিপ পেয়েছেন সিলেটের কৃতিসন্তান আয়ান মুমিনুল হক। কমনওয়েলথভুক্ত ৫৩টি দেশের ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়সি যেসব তরুণ মানুষের জীবনমান উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন, তাদের মধ্য থেকে ‘কুইন্স ইয়াং লিডার’ মনোনয়নের জন্য এ ফেলোশিপ প্রদান করে যুক্তরাজ্য সরকার।

কমনওয়েলথভুক্ত দেশের হাজার হাজার প্রার্থীদের মধ্যে যাচাইবাছাই শেষে নির্বাচিত ৬০ জনকে কুইন্স ইয়াং লিডার পুরস্কার দেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। এ পর্যন্ত বাংলাদেশের মাত্র ছয়জন তরুণ এ পুরস্কার পেলেও সিলেটে আয়ানই প্রথম ফেলো হলেন। বাংলা ইউনিভার্সিটির মাধ্যমে অনলাইনে উচ্চশিক্ষার প্রসারপ্রচেষ্টার জন্য তাকে এ ফেলোশিপ প্রদান করা হয়।

আয়ান হক সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের ২৬ তম ব্যাচের ছাত্র। মার্কেটিংয়ে অনার্স ও মাস্টার্স সম্পন্ন করে বর্তমানে তিনি শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেসর ড. মনিরুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে মার্কেটিং বিষয়ে এমফিল লিডিং পিএইচডি করছেন। তিনি নগরীর মিরাবাজার খারপাড়ার আমেরিকা প্রবাসী মরহুম শামসুল হকের পুত্র।

তার দাদা বিজ্ঞানী রফিক উদ্দিন আহমেদ আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসায় কাজ করা প্রথম বাঙালি হিসেবে চন্দ্রঅভিযানের অংশ হয়েছিলেন। আগামি ১৭ অক্টোবর লন্ডনে দ্য রয়্যাল কমনওয়েলথ সোসাইটির ১৫০তম বার্ষির্কীতে আয়ানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

শেয়ার করুন