সিলেটে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমাবেশে বিকল্প শক্তি গড়ে তোলার আহবান

সিলেটের সকাল ডেস্ক:: ফ্যাসীবাদ, দুঃশাসন দুর্নীতি -লুটপাট ও বিচারবহির্ভুত হত্যাকান্ডের বিরুদ্ধে বাম বিকল্প শক্তি গড়ে তোলার আহবান জানিয়েছেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

শুক্রবার সিলেটে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমাবেশে নেতৃবৃন্দ এই আহবান জানান।  বিকেল চারটায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে সিপিবি প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু জাফরের সভাপতিত্বে ও বাসদ (মার্কসবাদী) সিলেট জেলার সদস্য এডভোকেট হুমায়ুন রশীদ সোয়েবে পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, বাসদ মার্কসবাদী কেন্দ্রীয় কার্যপরিচালনা কমিটির সদস্য ফখরুদ্দীন কবির আতিক, সিপিবি সিলেট জেলার সভাপতি হাবুবিল ইসলাম খোকা, বাসদ (মার্কসবাদী) সিলেট জেলার আহবায়ক উজ্জ্বল রায়, বাসদ সিলেট জেলার সমন্বয়ক আবু জাফর, কেন্দ্রীয় কার্য পরিচালনা কমিটির সদস্য, বাসদ (মার্ক্সবাদী) ফখরুদ্দীন কবির আতিক, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, সিপিবি সিলেট জেলার সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বেদানন্দ ভট্টাচার্য, বাসদ মৌলভীবাজার জেলার আহবায়ক এডভোকেট মইনুর রহমান মগনু, সিপিবি মৌলভীবাজার জেলার সাধারন সম্পাদক নিলিমেষ ঘোষ বুলু, বাসদ হবিগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক জুনায়েদ আহমদ, হবিগঞ্জ জেলার সিপিবি সভাপতি হাবিবুর রহমান, সাধারন সম্পাদক পীযুষ চক্রবর্তী, সিপিবি সিলেট জেলার সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সুমন, সহ-সম্পাদক খায়রুল হাছান, সিপিবি মৌলভীবাজার জেলার সহ সম্পাদক মাসুক আহমদ, বাসদ (মার্কসবাদী) সিলের জেলার সদস্য সুশান্ত সিনহা, বাসদ সিলেট জেলা সদস্য প্রণব জ্যোতি পাল, বাসদ (মার্কসবাদী) হবিগঞ্জ জেলার সংগঠক শফিকুল ইসলাম, মৌলভীবাজার জেলার সংগঠক অনিক চন্দ প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘বর্তমান সরকার সংবিধান স্বীকৃত জনগণের সকল গণতান্ত্রিক অধিকার রুদ্ধ করে দমন-নিপীড়নের পথে জবরদস্তিমূলক ক্ষমতা অব্যাহত রেখেছে। জোর করে আবারও ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য অত্যাচার, নির্যাতন, হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার, রিমান্ডে শরীরিক-মানসিক নির্যাতন, অপহরণ, গুম, খুন ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ডেকে সাধারন নিয়মে পরিনত করেছে।
বক্তারা বলেন, সরকার গোটা নির্বাচনী ব্যবস্তাকে ভোট ডাকাতি ও নিয়ন্ত্রণ করে প্রহসনে পরিনত করেছে। তাই আমরা মনে করি বর্তামান সরকারকে জাতীয় নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙ্গে পদত্যাগ করে সকল রাজনৈতিক দলের জন্য লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি করতে হবে। যাতে সাধারন মানুষ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে।’

বক্তারা, দ্বি-দলীয় বর্জোয়া রাজনৈতিক হানাহানির বিপরীতে জনগণের বাম বিকল্প শক্তি গড়ে তুলতে জনগণের প্রতি আহবান জানান।

শেয়ার করুন