শিল্পীদের সম্মাননা জানালো বাংলাদেশ ব্যাংক

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট অফিসের নির্বাহি পরিচালক মোঃ শাহ আলম বলেছেন, ‘শিল্পের কদর করতে হলে প্রথমে শিল্পীদের যথাযথ সম্মান করতে হবে। আমরা অনুষ্ঠানাদিতে যাদের সুললিত কন্ঠে গান শুনে মুগ্ধ হই, অনুষ্ঠানের পর আর তাঁদের খোঁজই নেই না।’

তিনি জাতীয় পর্যায়ে অনেক নামী শিল্পীর অনুষ্ঠান উপভোগের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘সিলেটের শিল্পীদের গান তাঁদের চেয়ে কোন অংশে পিছিয়ে নেই। তিনি উদীয়মান শিল্পীদের নিয়মিত অনুশীলন ও পরিচর্যার মাধ্যমে জাতীয় পর্যায়ে পৌছতে অধ্যাবসায় চালিয়ে যাবার পরামর্শ দেন।’

বুধবার বিকালে সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক ক্লাবের অভিষেক অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া ৮জন সঙ্গীত শিল্পী ও কলাকুশলীর সম্মানে আয়োজিত এক সম্মাননা অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। বাংলাদেশ ব্যাংক ক্লাবের সভাপতি বিনয় ভূষণ রায়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী আকতারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট অফিসের মহাব্যবস্থাপক মোঃ সাজ্জাদ হোসেন এর ও জীবন কৃষ্ণ রায়।

সংবর্ধিত শিল্পীরা হলেন- অধ্যাপক বিজন রায়, দেবাশীষ ব্যানার্জী, সুদীপ পাল, রাতুল সিনহা, পল্লবী রায় তৃনা, অর্পনা দে, অন্বেষা দাশ ও অনিন্দিতা দেব। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপমহাব্যবস্থাপক মোঃ আব্দুল হাছিব, ছৈয়দ আহমদ, যুগ্ম পরিচালক মোঃ জাবেদ আহমদ, উপ পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম, শাহ মোঃ আশরাফ সিদ্দিকী, ব্যাংক ক্লাবের সহ সভাপতি সতীশ চন্দ্র দাশ, সাহিত্য সম্পাদক জ্যোতি মোহন বিশ্বাস, সাংস্কৃতিক সম্পাদক প্রণয় রায় ও ক্রীড়া সম্পাদক(অভ্য) মোঃ আব্দুল মোতালেব।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রশাসনের পক্ষ হতে শিল্পীদের নগদ ১৫হাজার টাকা সম্মানী প্রদান করা হয়। সম্মাননার জবাবে শিল্পীদের পক্ষ হতে বক্তব্যদানকালে অধ্যাপক বিজন রায় বলেন কোন অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার পর ডেকে এনে সম্মাননা জানানোর ঘটনা আমার শিল্পীজীবনের ৩০ বছরের মধ্যে এটাই প্রথম।

তিনি শিল্পীদের এ সম্মান জানানোর জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে বিশেষ করে নির্বাহী পরিচালক মোঃ শাহ আলম এবং মহাব্যবস্থাপক মোঃ সাজ্জাদ হোসেন ও জীবন কৃষ্ণ রায় এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

শেয়ার করুন