রেকর্ড ১৩তম সুপার কাপ বার্সার

স্পোর্টস ডেস্ক:: প্রথম মৌসুমে চোট জর্জর হয়ে খেলতে পারেননি উসমান দেম্বেলে। অনেকেই তাকে বাতিলের খাতায় ফেলে দিয়েছিলেন। এমনকি দল বদলের গুঞ্জনটিও ভেসে বেড়াচ্ছিল ন্যু ক্যাম্পে। সেই ফরাসি ফরোয়ার্ড ভূমিকা রাখলেন বার্সেলোনার সুপার কাপ জয়ে। রবিবার মরক্কোতে সেভিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়ে স্প্যানিশ সুপার কাপ ঘরে তুলেছে কাতালানরা।

প্রথমবারের মতো সুপার কাপ হলো স্পেনের বাইরে। তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল উত্তেজনা। নিয়ম পাল্টানোতে ম্যাচ বয়কটের হুমকি দিয়ে রেখেছিল সেভিয়া।  নন ইউরোপীয় ফুটবলার খেলানোর বাধ্যকতা নিয়ে স্প্যানশি ফুটবল ফেডারেশনের শিথিল মনোভাব পছন্দ হয়নি তাদের। সেই তেতে থাকা মানসিকতা টের পাওয়া গেছে ম্যাচের শুরুতেই।  ৯ মিনিটেই লুইস মুইরিয়েলের ক্রস থেকে পাবলো সারাবিয়ার গোলে এগিয়ে যায় সেভিয়া। শুরুতে অফ সাইডের ফাঁদে পড়ে বাতিল হয়ে গিয়েছিল সেই গোল। কিন্তু ভিএআর সিদ্ধান্তে স্বস্তি ফিরে আসে সেভিয়া শিবিরে। যা স্প্যানিশ ফুটবলে এবারই প্রথম ব্যবহার হলো।

প্রাণভোমরা মেসি সমতায় ফেরাতে বেশ কয়েকবার চেষ্টা নিয়েছিলেন। মরিয়া হয়ে শট নিলেও লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়েছে সেসব। শেষ পর্যন্ত ৪২ মিনিটে বার্সাকে সমতায় ফেরান জেরার্দ পিকে। অবশ্য এই সমতা ফেরানো গোলটিতে ভূমিকা ছিল মেসি আর ডেড বলের!

আর্জেন্টাইন তারকা ফ্রি কিক নিলে তা গিয়ে লেগে যায় গোল পোস্টে। ফিরতি বলে বলটি গোলকিপার থমাস ভালিকের পেছনে লেগে আবার পোস্টে লেগে ফিরলে সুযোগ আর হাত ছাড়া করেননি পিকে। ৪০তম গোলটি তুলে নেন অনায়াসে।

৭৮ মিনিটে বার্সার হয়ে জয় সূচক গোলটি করেন ফরাসি তারকা দেম্বেলে। তাতে বার্সার নিশ্চিত হয় রেকর্ড ১৩তম স্প্যানিশ সুপার কাপ।

শেয়ার করুন