রাজস্থানের ৮ গ্রামের মুসলিম নাম পরিবর্তন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: রাজস্থান ভারতের একটি জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র। এই রাজ্যের ৮টি গ্রামের মুসলিম নাম পরিবর্তন করে হিন্দু নাম দেয়া হয়েছে। রাজ্যের বড়মে জেলার ‘মিয়া কা বড়া’ নামের একটি গ্রামের নাম বদল করে করা হয়েছে ‘মহেশপুর’। অন্যদিকে রাজ্যের অপর একটি গ্রাম ‘ইসমাইলপুর’ এর নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে ‘পিচানবা খুর্দ’।

রাজ্য সরকারের উদ্যোগে এমন আরও ৬টি গ্রামের নাম পরিবর্তন করা হয়েছে রাজস্থানে। যেগুলোর অধিকাংশ ছিল মুসলিম নাম। কয়েকমাস আগে রাজ্যের বেশ কিছু গ্রামের নাম বদলের জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব দিয়েছিল রাজস্থান সরকার। গত ১ জুন সেই গ্রামগুলির মধ্যে ৮টি গ্রামের নাম পরিবর্তন আবেদন মঞ্জুর করে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

‘মিয়া কা বড়া’ গ্রামের বাসিন্দা ও পঞ্চায়েত প্রধান হানওয়ান্ত সিং দাবি করেন, তাদের গ্রামের নাম আগে ছিল ‘মহেশ রো বড়া’। পরে সেটিই বিকৃত হয়ে ‘মিয়া কা বড়া’ হয়ে যায়।

তিনি বলেন, ‘ছোটবেলায় জানতাম আমাদের গ্রামের নাম মহেশ রো বড়া। কয়েক দশকের মধ্যে নামটা পালটে যায়। ২০১০ সালে আমি পঞ্চায়েত প্রধান হওয়ার পর থেকে নাম বদলের বিষয়ে উদ্যোগ নিয়েছিলাম। পুরনো নথি দিয়ে নাম বদলের জন্য প্রশাসনিক দফতরে আবেদন করেছিলাম। গত জুন মাসে সেই আবেদন মঞ্জুর করেছে কেন্দ্র সরকার। গ্রামের নতুন নাম হয়েছে মহেশনগর।’

এই নাম পরিবর্তনের পেছনে রাজস্থান রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্র সরকারের অন্য অভসন্ধি রয়েছে বলে অভিযোগ করেছে অনেকে। গ্রামগুলির মধ্যেও ধর্মান্তর প্রক্রিয়া চালু করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে দুই জায়গাতেই সরকার পরিচালনাকারী দল বিজিপির বিরুদ্ধে।

রাজস্থান রাজ্য সরকার অবশ্য বলছে, নামে মুসলিম হলেও গ্রামগুলো আসলে হিন্দু অধ্যুষিত। তাই নাম পরিবর্তনের এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন