মাধবপুর থেকে অপহরণকারী চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব 

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ হবিগঞ্জের মাধবপুর থানা এলাকা থেকে অপহরণ চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৯ এর সদস্যরা। আটককৃতরা হচ্ছে-লাখাই উপজেলার সুজন গ্রামের মৃত রেজ্জেক আলীর পুত্র, বর্তমানে মাধবপুরের নয়াপাড়া চা বাগান এলাকার বাসিন্দামোঃ সাইদুল ইসলাম (৩৭), এবং মাধপুরের মঙ্গলপুর গ্রামের জিতেন্দ্র চন্দ্র পালের পুত্র জীবন চন্দ্রপাল (৩৫)। গত শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের আটক করা হয়। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, সিপিসি-২, (শ্রীমঙ্গল ক্যাম্প) এর একটি আভিযানিক দল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিমান চন্দ্র কর্মকার এর নেতৃত্বে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানা এলাকায় অপহরণকারী চক্রের সদস্যকে আটক করার জন্য অভিযান পরিচালনা করে। আভিযানে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানাধীন নয়াপাড়া বাজারে সিএনজি স্ট্যান্ড থেকে অপহরণকারী চক্রের ওই দুই সদস্যকে আটক করে র‌্যাব-৯। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১৭ আগস্ট ২০১৮ আনুমানিক বিকাল সাড়ে ৪টায় ধর্মঘর গরুর বাজার হতে ভিকটিম মোঃ নিশাত রহমান নিলয় (৮) পিতা-মশিউর রহমান, গ্রাম-ধর্মঘর, থানা-মাধবপুর, জেলা-হবিগঞ্জকে ধর্মঘর বাজার হতে অভিযুক্ত সাইদুল ও জীবন চন্দ্র অপহরণ করে নিয়ে যায়। ভিকটিমের মামা ও বাবা বাজারে অনেক খোঁজাখুঁজির পর নিশাতকে না পেয়ে মাধবপুর থানায় ১৮ আগস্ট ২০১৮ একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। গত ১৯ আগস্ট রাত সাড়ে ৮টায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি অপরিচিত নম্বর (০১৭৭১-০৫৯৯৪৭) থেকে ফোন করে ভিকটিমের মামার নিকট মুক্তিপনের জন্য ২০,০০০ টাকা দাবি করে এবং বলে ২০,০০০ টাকা দিলে তার ভাগ্নেকে ছেড়ে দেওয়া হবে। এই প্রতিশ্রুিতিতে ভিকটিমের মামা অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের দেওয়া বিকাশ (০১৭৫২১৮৮৮৯৩)নম্বরে ২০,০০০ টাকা প্রদান করে। কিন্তু তারা নিলয়কে ছাড়েনি। পরবর্তীতে র‌্যাবের মোবাইল ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে বের হয় অপরিচিত মোবাইল (০১৭৭১-০৫৯৯৪৭) নম্বরটি মোঃ সাইদুল ইসলাম (৩৭) এর এবং বিকাশ (০১৭৫২১৮৮৮৯৩) নম্বরের মালিক জীবন চন্দ্রপাল (৩৫)। এই সূত্রধরে উক্ত অপরাধীদের সনাক্ত করে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব। গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

শেয়ার করুন