বিতর্ক বিজ্ঞানমনষ্ক জাতি গঠনে সাহায্য করে: প্রফেসর গোলাম কিবরিয়া

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক সিলেট শিক্ষাবোর্ডের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর গোলাম কিবরিয়া তাপাদার বলেছেন, সবাইকে বিজ্ঞানী হওয়ার দরকার নেই, বিজ্ঞান মনষ্ক হতে হবে। তিনি আরো বলেন, বিতর্ক বিজ্ঞানমনষ্ক জাতি গঠনে সাহায্য করে। তাই আমাদের কৃষিক্ষেত্রে একজন কৃষককে, শ্রমক্ষেত্রে শ্রমিকদের বিজ্ঞান মনষ্ক হয়ে উঠতে হবে। যে যত উন্নত বুঝতে হবে তারাই বিজ্ঞানমনষ্ক। তাই আমাদের তরুণদেরকে বিজ্ঞান মনষ্ক জাতি হিসাবে গড়ে তুলতে হবে। যাতে করে আগামীর দেশ হয় বিজ্ঞান নির্ভর তারুণ্যের বাংলাদেশ।

শুক্রবার বিএফএফ-সমকাল জাতীয় বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব সিলেট অঞ্চল পর্বের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

সমকাল সিলেটের ব্যুরো প্রধান চয়ন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সমকাল সুহৃদ সমাবেশ সিলেট জেলার সাধারন সম্পাদক আছমা আখতার মনির পরিচালনায় শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য দেন সুহৃদ সভাপতি সুব্রত বসু।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, সিলেট সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক কবীর খান। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন, সমকাল সিলেট ব্যুরো স্টাফ রিপোর্টার মুকিত রহমানী।

বিতর্কে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমম্বয় পরিষদের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য মোকাদ্দেস বাবুল, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেইটিং সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক রাইতাহ বিনতে আহসান এবং সাবেক সভাপতি জান্নাতুল তাজরীন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সমকাল সিলেট ব্যুরোর স্টাফ রিপোর্টার ফয়সল আহমদ বাবলু, ফটো সাংবাদিক ইউসুফ আলী, সুহৃদ জেসমিন সুলতানা, সুজিত দাশ, হেনা মম, সজীব চৌধুরী, পঙ্কজ কান্তি রায়, সাবের হোসেন রানা, উৎপল দাশ, সাব্বির আহমদ, লতিফুর রহমান উজ্জল, সাকিব রহমানী সাদমান, মুনিরা রহমানী মাহা প্রমূখ।

সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত উৎসবে অংশ নেয় সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ, কুমিল্লার পুলিশ লাইন উচ্চ বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জের সরকারি সতীশ চন্দ্র বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, ব্রাম্মণবাড়িয়ার অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও মৌলভীবাজারের দি ফ্লাওয়ার্স কেজি এন্ড হাই স্কুল। সব দলকে পেছনে ফেলে চ্যম্পিয়ন হয় ব্রাম্মণবাড়িয়ার অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। রানার আপ হয় হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। পরে চ্যম্পিয়ন ও রানার আপ হওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে পুরষ্কার তুলে দেন অতিথিরা।

শেয়ার করুন