বাগবাড়ি নরসিংটিলায় অজ্ঞান পার্টির হানা ॥ চিকিৎসার ৫ লক্ষাধিক টাকা লুট

নরসিংটিলায় অজ্ঞান পার্টির তছনছ করা বাসা ছবি-সিলেটের সকাল

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ সিলেট নগরীর বাগবাড়ি নরসিংটিলা এলাকায় সাবেক ব্যাংকারের পরিবারের সদস্যদের অজ্ঞান করে চিকিৎসার ৫ লক্ষাধিক টাকাসহ বাসার আরো কিছু মালামাল নিয়ে গেছে ‘অজ্ঞান পার্টি’। তাদের নেশা জাতীয় দ্রব্য খেয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়া সাথী রাণী দাস, বর্ষা দত্ত ও রাহুল চৌধুরী ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। গৃহকর্তা বিজয় ভূষণ চন্দ্র কিছুটা সুস্থ আছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।
স্থানীয় সূত্র জানায়, শুক্রবার রাত ৩টার দিকে কয়েকজন যুবক সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা বিজয় ভূষণ চন্দ্রের বাসার (বাসা নং ৮৬) গ্রীল কেটে ভেতরে প্রবেশ করে। তারা পরিবারের সদস্যদের নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে অজ্ঞান করে ফেলে। এরপর বাসায় ভারতে চিকিৎসার জন্য রাখা ৫ লক্ষ ৪১ হাজার টাকা, কয়েক ভরি স্বর্ণালংকার ও বাসা থেকে মূল্যবান কিছু কাগজপত্র নিয়ে গেছে। এ পরিবারের তিন সদস্যকে অজ্ঞান অবস্থায় ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া, দুর্বৃত্তরা ওই বাসার পাশের ফ্ল্যাটের বাসিন্দাদের জিম্মি করে আরো ৪০ হাজার টাকা নিয়ে গেছে।
বাগবাড়ি নরসিংটিলা সমাজ কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সারোয়ার জানান, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরানও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় শনিবার রাতে বাগবাড়ি নরসিংটিলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির জরুরী সভা ডাকা হয়েছে বলে জানান তিনি।
কোতয়ালী থানার ওসি মোশাররফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, চোরেরা খাবারের সাথে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে নগদ অর্থসহ ওই বাসা থেকে অন্যান্য মালামাল নিয়ে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

শেয়ার করুন