কাজিরবাজার ও শাহপরানে জালনোট সনাক্তকরণ বুথের উদ্বোধন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: পবিত্র ঈদ উল আজহা উপলক্ষে সিলেট বিভাগ জুড়ে কোরবানীর গরুর হাটে জালনোট সনাক্তকরণ বুথ চালু করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের উদ্যোগে বাণিজ্যিক ব্যাংকসমুহ বুথসমুহ পরিচালনা করছে।

সিলেট মহানগরের কাজিরবাজার গরুর হাটে জনতা ব্যাংক লিমিটেডের নেতৃত্বে ২২টি বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং হযরত শাহপরান (র.) বাজারে অস্থায়ী কোরবানীর গরুর হাটে সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের নেতৃত্বে ২২টি বাণিজ্যিক ব্যাংক পালাক্রমে দায়িত্ব পালন করছে।

সোমবার সকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক (চলতি দায়িত্বে) জীবন কৃষ্ণ রায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত হয়ে শাহপরান (র.) বাজার ও কাজিরবাজারে বুথ দুটির কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

কাজিরবাজারে জালনোট সনাক্তকরণ বুথের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জনতা ব্যাংক লিমিটেড সিলেট কর্পোরেট শাখার উপমহাব্যবস্থাপক সন্দ্বীপ কুমার রায়ের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনতা ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ রিয়াজুল ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের উপমহাব্যবস্থাপক শান্তনু কুমার রায় ও জনতা ব্যাংক লিমিটেডের উপমহাব্যবস্থাপক আব্দুল ওয়াদুদ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক মোঃ আতিকুর রহমান, মোঃ জাবেদ আহমদ, জনতা ব্যাংক লিমিটেডের কর্মকর্তা আলম হোসেন, উজ্জল হোসেন, বেসিক ব্যাংক লিমিটেডের কর্মকর্তা শাহাবুজ্জামান ও জুনায়েদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। চালু হওয়া এসব বুথ ঈদের দিন পর্যন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করবে। লীড ব্যাংকের নেতৃত্বে দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যাংকসমুহের কর্মকর্তারা পর্যায়ক্রমে কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

উল্লেখ্য, জালনোট সনাক্তকরণ বুথ কার্যক্রম মনিটরিং এর জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের একাধিক টীমকে বিভাগজুড়ে কোরবানীর হাটে পাঠানো হয়েছে। সার্বিক কার্যক্রম মনিটরিং এর জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকে ২০-২২ আগস্ট পর্যন্ত সার্বক্ষণিক কন্ট্রোল রুম চালু হয়েছে। কন্ট্রোল রুমে কারেন্সী বিভাগের যুগ্ম পরিচালক মোঃ আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে একাধিক কর্মকর্তা পালা করে দায়িত্ব পালন করবেন। যে কোন প্রয়োজনে ৭১৩৭৫৩ নম্বরে কন্ট্রোল রুমের সাথে যোগাযোগ করা যাবে।

শেয়ার করুন