আল ইসলাহ ছাত্র সংসদের কার্যনির্বাহী পরিষদের অভিষেক

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: দেশের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি বিদ্যাপীঠ জামেয়া মাদানিয়া ইসলামিয়া কাজিরবাজার সিলেটের প্রতিষ্ঠাতা ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর প্রিন্সিপাল আল্লামা হাবীবুর রহমান বলেছেন, ক্বওমি মাদ্রাসা হলো আদর্শ নাগরিক তৈরীর কারখানা। আর মাদারিসে ক্বওমিয়ার ছাত্রদেরকে সকল প্রকার অনৈসলামিক কার্যক্রমের প্রতিবাদে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে, হোক তা লিখনি বা বক্তব্যের মাধ্যমে।

তিনি জামেয়া মাদানিয়ায় অনুষ্ঠিত আল ইসলাহ ছাত্র সংসদের নবগঠিত কার্যনির্বাহী পরিষদের অভিষেক অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।গত মঙ্গলবার সকাল ১১টায় জামেয়া মিলনায়তনে এ অভিষেক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অভিষেক অনুষ্ঠানে তিনি নব মনোনীত ছাত্র সংসদের কার্যনির্বাহী পরিষদ সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান।
ছাত্র সংসদের বিদায়ী জি.এস. হাফিয ইকরামুল হক জুনাইদ ও নবমনোনীত জি.এস হাফিয উবায়দুর রহমান নাহিদের যৌথ উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, জামেয়ার সদরুল মুদাররিস ও হোস্টেল তত্ত্বাবধায়ক মাওলানা আব্দুস সুবহান, শিক্ষা সচিব ও আল ইসলাহ সহ-সভাপতি মুফতী মুহাম্মদ শফীকুর রহমান, সাবেক জি.এস. ও জামেয়ার মুহাদ্দিস মাওলানা শাহ মমশাদ আহমদ, জামেয়ার ভাইস প্রিন্সিপাল ও আল ইসলাহ সহ-সভাপতি মাওলানা সামীউর রহমান মুসা, জামেয়ার শিক্ষক হাফিয মাওলানা মুশফিকুর রহমান মামুন।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ আলী ফাহিম, সহ-অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ আব্দুল মুক্তাদির, সাহিত্য সম্পাদক হাফিয হুসাইন আহমদ, সহ-সাহিত্য সম্পাদক মুহাম্মদ মামুনুর রশীদ, পাঠাগার সম্পাদক হাফিয মাহফুজ হুসাইন, সহ-পাঠাগার সম্পাদক হাফিয সায়েম আহমদ, ছাত্র কল্যাণ সম্পাদক হাফিয রেজওয়ান আহমদ, সহ-ছাত্র কল্যাণ সম্পাদক আখতার হুসাইনসহ ক্লাস প্রতিনিধি ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

 

শেয়ার করুন