ছাতকে নৌকা ডুবে পাথর শ্রমিক নিহত, আহত ২

ছাতক প্রতিনিধি:: ছাতকে বাল্কহেড নৌকার ধাক্কায় ফেরী নৌকা ডুবে ছয়ফুল ইসলাম(২৯)নামের এক পাথর শ্রমিক নিহত ও দু’ শ্রমিক আহত হয়েছে। এসময় ফেরী নৌকায় থাকা আরো কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। গতকাল রোববার দুপুরে উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের গোয়ালগাঁও এলাকায় পিয়াই নদীতে এ দূর্ঘটনা ঘটে।

ছয়ফুল ইসলাম জামালগঞ্জ উপজেলার হরিপুর গ্রামের মোহাম্মদ উদ্দিনের পুত্র। একই এলাকার বাসিন্দা আহত পাথর শ্রমিক আছির আলী(৫০) ও আরাফাত আলী(৪৫)কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, কাঠবডির একটি ফেরী নৌকা যোগে ১০-১২ জন শ্রমিক গোয়ালগাঁও এলাকায় পিয়ান নদীতে থাকা নৌকায় পাথর লোডিংয়ের কাজে যাচ্ছিল। গন্তব্যে থাকা নৌকার কাছে ফেরী নৌকাটি পৌছলে গোয়ালগাঁও অতিক্রম করে যাওয়া একটি বাল্কহেড ফেরী নৌকাকে চাপা দেয়। এতে ফেরী নৌকাটি ভেঙ্গে তলিয়ে গেলে ফেরীতে থাকা পাথর শ্রমিকরা নদীতে ঝাপ দেয়। এ সময় শ্রমিকদের অনেকেই কুলে উঠলেও ছয়ফুলসহ কয়েকজন শ্রমিক নিখোঁজ হয়। পরে পাথর লোডিংয়ে থাকা শ্রমিকরা আহত অবস্থায় ছয়ফুল ইসলাম, আরাফাত আলী ও আছির আলীকে উদ্ধার করে ছাতক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার ছয়ফুল ইসলামকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ব্যাপারে ছাতকের পাথর ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, নৌ-দূর্ঘটনা এড়াতেই ভারী নৌযানকে পিয়ান নদীর গোয়ালগাঁও পয়েন্ট অতিক্রম না করে লোডিং করতে বলা হয়েছে। প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ীদের সমন্বয়ে করা ডিড কিছু-কিছু ব্যবসায়ীরা অমান্য করায় এ ধরনের নৌ-দূর্ঘটনা ঘটে যাচ্ছে।

ছাতক থানার ওসি আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

শেয়ার করুন