আরিফুলের অল রাউন্ড নৈপুণ্য সিলেটে ‘এ’ দলের জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার : অনানুষ্ঠানিক টেস্ট সিরিজটা খুব ভালো যায়নি শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে। কিন্তু বাংলাদেশ ‘এ’ দল নিজেদের মাটিতে তিন ম্যাচের অনানুষ্ঠানিক ওয়ানডে সিরিজটা শুরু করলো জয় দিয়ে। মঙ্গলবার সিলেটে প্রথম ম্যাচে উত্তেজনার ২ রানের জয়ে সিরিজে ১-০ তে লিড নিল স্বাগতিকরা।বাংলাদেশের দলটি শেষ বলে লঙ্কান শেষ উইকেট তুলে নিয়ে জিতেছে। আগে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ২৮০ রান করেছিল স্বাগতিক ‘এ’ দল। জবাবে, ঠিক ৫০ ওভারে ২৭৮ রানে অল আউট হয় শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দল। এই জয়ে বল হাতে দুই পেসার খালেদ মাহমুদ ও শরিফুল ইসলাম সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। ডানহাতি খালেদ ৪ ও বাঁহাতি শরিফুল ৩ উইকেট শিকার করেছেন। আরেক মিডিয়াম পেসার আরিফুল হক নিয়েছেন ২ উইকেট। আসলে আরিফুলের ব্যাটে-বলের ভূমিকা এই জয়ে ছিল বড় প্রভাবক।

বাংলাদেশের ব্যাটিং ইনিংসে আছে দুটি ফিফটি এবং হাফ সেঞ্চুরির কাছাকাছি যাওয়া দুটি ইনিংস। ওপেনার মিজানুর রহমান ৬৭ রান করেছেন। অন্য ওপেনার সৌম্য সরকারের ব্যাট থেকে এসেছে ২৪ রান। মিডল অর্ডারে ফজলে মাহমুদ ৫৯ রান দিয়েছেন। ঠিক ৪৪ বলে ৪৪ রান এসেছে মোহাম্মদ মিঠুনের ব্যাট থেকে। আরিফুল হক ৪৭ রান করেছেন। শীর্ষ এই ব্যাটসম্যানরা আসলে ভালো একটা দলগত রান এনে দিয়েছিলেন।

এরপর শরিফুল ও আরিফুল মিলে লঙ্কান টপ অর্ডার ভেঙেছেন। পরে হাত লাগিয়েছেন খালেদ। সর্বোচ্চ ইনিংসের মালিক দানুস শানাকাকে (৭৮) শিকার করেছেন খালেদই। ৪১তম ওভারে ২০০ করা লঙ্কানরা জয়ের স্বপ্ন দেখছিল অধিনায়ক থিসারা পেরেরার (২২) ব্যাটে। কিন্তু খালেদ তাকে ফিরিয়ে জয়ের পথে নিয়ে যান দলকে। তবু উত্তেজনা ছিল শেষ ওভার পর্যন্ত। শেষ বলে শিহান মাদুশানকাকে (২১) তুলে নিয়ে দলকে দারুণ জয় এনে দেওয়ার নায়ক খালেদই। লিস্ট এ ম্যাচে অভিষেকেই দুর্দান্ত এই পেসার। তবে ম্যান অব দ্য ম্যাচ অল রাউন্ড পারফরম্যান্সে আরিফুল।

শেয়ার করুন