‘দুই দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ কোরিয়া এক সাথে কাজ করে যাবে’

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: এম্বেসি অব দি রিপাবলিক কোরিয়ার ডিরেক্টর জেনারেল মি: জনং উন কিম ও তার প্রতিনিধি দলের সাথে মতবিনিময় করেছে সিলেট চেম্বার নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার বিকেলে চেম্বারের কনফারেন্স হলে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ।

মতবিনিময় সভায় কোরিয়া ট্রেড ইনভেস্টমেন্ট প্রমোসন এজেন্সি এর কর্মাশিয়াল কাউন্সিলর ও ডিরেক্টর জেনারেল মি: জনং উন কিম বলেন, ‘বাংলাদেশের সাথে দক্ষিণ কোরিয়ার বাণিজ্যিক সম্পর্ক খুবই চমৎকার। কটরা বাংলাদেশ ও দক্ষিণ কুরিয়ার ব্যবসা ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে কাজ করে যাচ্ছে। বিশ্বের শীর্ষ ব্রান্ড এর তালিকায় রয়েছে কোরিয়ান কোম্পানীগুলো। তাছাড়া ইলেকট্রনিক্স পণ্যের বৃহত্তম র্নিমাতা হচ্ছে কোরিয়া।’

তিনি বলেন, বাংলাদেশ খুবই সম্ভাবনার দেশ। এখানে বিনিয়োগের জন্য আমরা আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি সিলেট সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন। তিনি সিলেট থেকে ব্যবসায়ী প্রতিনিধি প্রেরণের আহবান জানান।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সভাপতি জনাব খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, সিলেট অঞ্চল শিল্প এবং বিনিয়োগের অন্যতম সম্ভাবনাময় এলাকা। তিনি সিলেটে স্থাপিতব্য বাংলাদেশের প্রথম শ্রীহট্ট ইকোনমিক জোন ও কোম্পানীঞ্জ হাইটেক পার্কে সরাসরি বিনিয়োগ করার জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে বিনিয়োগকারীদের সবধরণের সুযোগ-সুবিধা দিতে সরকার প্রস্তুত রয়েছে। যে কারণে সিলেটে বিনিয়োগ করলে বিনিয়োগকারীরা লাভবান হবেন। তিনি বলেন, সিলেট অঞ্চল চায়ের জন্য বিখ্যাত। এখানে আইটি ও ট্যুরিজমের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া সিলেটের পার্শ্ববর্তী ভারতের সেভেন সিস্টারে পণ্য বিপণনের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি জনাব মোঃ মাসুদ আহমদ চৌধুরী, নর্থ ইস্ট ইউনির্ভাসিটির এসোসিয়েট প্রফেসর জনাব তানভির আহমেদ চৌধুরী, বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভেলাপমেন্ট অথরিটি (বিডা)’র সহকারী পরিচালক জনাব সৈয়দ মোহাম্মদ শরফুদ্দিন, কটরা এর সিনিয়র ম্যানেজার জনাব ফারুক আহমদ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এর প্রোগ্রামার ও সেন্টার ইনচার্জ জনাব মধুসূদন চন্দ, মেডিমার্ট এর এমডি ডা. সৈয়দ মোঃ খসরুজ্জামান, আলিম ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র এ্যাসিঃ ম্যানেজার জনাব মোঃ শহিদুল ইসলাম, সানটেক এনার্জি এর ব্যবস্থাপক জনাব মোঃ বদরুল আলম মকসুদ, জুনিয়র চেম্বারের পরিচালক জনাব মাসনুন আকিব বারভ’ইয়া, সিলেট চেম্বারের সদস্য জনাব সিরাজুল ইসলাম ও জনাব জয়নুল আখতার চৌধুরী প্রমুখ। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সিলেট চেম্বারের পরিচালক জনাব মোঃ সাহিদুর রহমান।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের পরিচালক জনাব পিন্টু চক্রবর্তী, জনাব মুশফিক জায়গীরদার, জনাব আমিরুজ্জামান চৌধুরী, জনাব মুকির হোসেন চৌধুরী, জনাব চন্দন সাহা, জনাব হুমায়ুন আহমেদ, আলহাজ¦ মো: আতিক হোসেন, জুনিয়র চেম্বারের পরিচালক জনাব আসাদুজ্জামান তানভির, জনাব মোঃ সায়মন মিয়া, জনাব এটিএম সামসুল চৌধুরী, গোল্ডেন হার্ভেস্ট এর প্রতিনিধি জনাব সারওয়ার কবির, জনাব মোহাম্মদ আব্দুল হক, সিলেট চেম্বারের সচিব জনাব গোলাম আক্তার ফারুক, যুগ্ম সচিব জনাবা নূরানী জাহান কলি, সহকারী সচিব জনাব সানু উদ্দিন রুবেল প্রমুখ।

শেয়ার করুন