এ বাজেটে মানুষের কল্যাণ হবে না: মঈন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সাইজ দিয়ে কোনো বাজেটের কোয়ালিটি নির্ধারিত হয় না জানিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, এই বাজেট জনগণকে শোষণ করছে। এই বাজেট একটি ভুয়া বাজেট। এই বাজেট দিয়ে কখনও বাংলাদেশের মানুষের কল্যাণ হবে না।

এই সরকারের বাজেট দেওয়ার কোনো এখতিয়ার নেই জানিয়ে তিনি আরও বলেন, বাজেট দেওয়ার নামে তারা জনগণের ট্যাক্সের টাকা লুটপাট করছে। ১শ’ কোটি টাকার প্রজেক্টকে হাজার কোটি টাকার মেগা প্রজেক্ট বানিয়ে সেখান থেকে লুট করছে।

বৃহস্পতিবার (৭ জুন) দুপুরে রাজধানীর শের-ই বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর তিনি একথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, বাজেটের আকার দিয়ে কিছু বোঝা যায় না। বাজেটের আকার বাজেটের মান সম্বন্ধে কিছু বলে না। বাজেটের মান অত্যন্ত নিম্ন। পদ্মাসেতু প্রজেক্ট প্রথম শুরু হয়েছিল মাত্র সাড়ে ৮ হাজার কোটি টাকায়। সেই প্রজেক্ট আজ ৩৫ হাজার কোটি টাকায় পরিণত হয়েছে।

বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, আমরা বলেছি এই প্রজেক্ট শেষ হতে হতে পদ্মাসেতুর বাজেট ৫০ হাজার কোটি টাকা হলেও আমরা অবাক হবো না। এতেই প্রমাণিত হয় যে বাজেটের কোয়ালিটি কী। বাজেট ফুলেফেঁপে বড় হয়েছে। এটা বাজেটের জন্য গৌরবময় কোনো বিষয় নয়।

তিনি বলেন, সাইজ দিয়ে কোনো বাজেটের কোয়ালিটি নির্ধারিত হয় না। আমি স্পষ্ট ভাষায় বলে দিতে চাই, এই বাজেট জনগণকে শোষণ করছে। এই বাজেট একটি ভুয়া বাজেট। এই বাজেট দিয়ে কখনও বাংলাদেশের মানুষের কল্যাণ হবে না।

বাজেট নিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া পরে জানানো হবে জানিয়ে তিনি বলেন, আমি বাজেট সম্বন্ধে এখানে বিস্তারিত বলতে চাই না। বাজেট আগে পেশ করা হোক। বাজেটের পরে আমরা তার চুলচেরা বিশ্লেষণ করবো।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মুনসি বজলুল বাসিত আঞ্জু, সহ-সভাপতি আব্দুল মতিন, সাধারণ সসম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এজিএম সামছুল হকসহ নেতাকর্মীরা।

শেয়ার করুন