সিলেটে হোটেলে আটকে রেখে তরুণীকে গণধর্ষণ, আটক ২

ইউএনবি :: বিয়ের কথা বলে এক তরুণীকে হোটেলে ১১ দিন আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় দক্ষিণ সুরমার হোটেল আল-তকদির থেকে জসিম ও হোটেল মালিক নিয়াজকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অভিযোগ অনুযায়ী, সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ঠাকুর বাড়ির এক তরুণীর (১৯) সাথে মোবাইল ফোনে প্রেম হয় জসিম উদ্দিনের। গত ২০ এপ্রিল বিয়ের কথা বলে জসিম ওই তরুণীকে নিয়ে হোটেল আল-তকদিরে রুম ভাড়া নেয়।

সেখানে তাকে দীর্ঘ ১১ দিন আটকে রেখে জসিম ও তার সহযোগীরা গণধর্ষণ করে। এমনকি ভাড়া দিয়ে খদ্দেরকে দিয়ে ধর্ষণ করানো হয়। ওই তরুণীর আইডি কার্ড, জন্ম সনদ, পাসপোর্ট ও মোবাইল কেড়ে নেয়া হয়।

গত ৩০ এপ্রিল কৌশলে হোটেল থেকে বের হয়ে ওই তরুণী তার পরিচিত বান্ধবী নাছিমার আশ্রয়ে চারজনকে আসামি করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

আসামিরা হচ্ছে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের জসিম উদ্দিন, দক্ষিণ সুরমার চাঁদনীঘাটস্থ হোটেল আল তকদিরের মালিক সৈয়দ নিয়াজ উদ্দিন, একই হোটেলের স্টাফ জাকির ও নূর মিয়া।

দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি খায়রুল ফজল হোটেলে ধর্ষণের ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শেয়ার করুন