‘ব্যাংকিং সেবা নিরাপদে মানুষের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে’

সিলেটে এসআইবিএলের রিজিওনাল কর্মশালা

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড-এসআইবিএলের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর (ডিএমডি) মো. জাফর আলম বলেছেন, ‘ব্যাংকিং সেবা মানুষের কাছে যতবেশি নিরাপদ বলে মনে হবে ততবেশি আমানত বাড়বে। যে ব্যাংক আর্থিক নিরাপত্তার নিশ্চয়তা বেশি দিতে পারবে, গ্রাহক সেই ব্যাংককে সবার আগে বেচে নেবেন। তাই বর্তমানে গ্রাহকের আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত রাখার বিষয়টিকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘ব্যাংকের নিজস্ব আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত রাখার পাশাপাশি এটিও এখন মূখ্য বিষয়। যেহেতু এখন ব্যাংকিং সিস্টেম আইটি নির্ভর, তাই হ্যাকারদের হাত থেকে আর্থিক এই খাতকে নিরাপদে রেখে মানুষের আমানত আবার তার কাছে পৌঁছে দেয়া বড় একটি চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় মূল ভূমিকা পালন করেন ব্যাংকের কর্মকর্তারা। এজন্য এসআইবিএলসহ অন্যান্য ব্যাংকগুলোর আইটি এবং প্রাতিষ্ঠানিক নিরাপত্তার বিষয়টিকে শক্তিশালী করা হয়েছে।’

জাফর আলম শনিবার সকালে সিলেটে সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ-এসআইবিএল আয়োজিত সিলেট রিজিওনালের কমকর্তাদের কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ব্যাংকের প্রতি মানুষের আস্তা বাড়াতে হবে। ব্যাংকিং সেবা আরও বেশি নিরাপদে মানুষের দোড়গোড়ায় পৌঁছাতে হবে। এজন্য ব্যাংক সংশ্লিষ্টদের আরও আন্তরিকতার সাথে নিজের দায়িত্ব পালন করতে হবে।

মহানগরীর একটি অভিজাত হোটেলের কনফারেন্স রুমে আয়োজিত কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট অফিসের ডিজিএম (ডিবিআই, উইং-২) মো. হারুনুর রশিদ, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং হেড অব আইটি সুলতান বাদশা, এসআইবিএল সিলেট ব্র্যাঞ্চের শাখা ব্যবস্থাপক মো. ফজলুর রহমান। মৌলভীবাজার শাখার সহ: ব্যবস্থাপক মুক্তার হোসেনের পরিচালনায় কর্মশালায় আলোচনায় অংশ নেন, ব্যাংকের আইটি বিভাগের এক্সিকিউটিব অফিসার রেজাউল ফয়সল, আইটি স্পেশালিস্ট আনোয়ার হোসেন। এতে সিলেটের ৮টি শাখার ৮৫ জন কর্মকর্তা অংশ নেন।

শেয়ার করুন