শায়েস্তাগঞ্জে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষে মামলা, গ্রেপ্তার ১০

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নছরতপুরে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষে পুলিশ আহত হওয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। এ মামলায় ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে শায়েস্তাগঞ্জের বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে পুলিশ এদেরকে গ্রেপ্তার করে। আজ শনিবার তাদেরকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান জানান, শুক্রবার সকালে নছরতপুরে সিএনজি চালিত অটোরিকশা সিএনজি শ্রমিকরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে সংঘর্ষে ১৪ পুলিশ আহত হয়।

এ ঘটনায় শায়েস্তাগঞ্জ থানার এসআই আব্দুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলায় ৮৮ জনের নাম উল্লেখ ছাড়াও অজ্ঞাত ৬শ’ থেকে ৭শ’ জনকে আসামী রাখা হয়েছে। মামলাটি তদন্ত করছেন ওসি(তদন্ত) মানিকুল ইসলাম। পুলিশ বাকী আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

উল্লেখ্য, শায়েস্তাগঞ্জ শহর থেকে অলিপুর ও সুতাংয়ে যেতে মহাসড়ক ব্যবহার করতে হয়। কিন্তু মহাসড়কে সিএনজি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ফলে শায়েস্তাগঞ্জ থানা ও শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে সিএনজি প্রবেশে কড়া নজর রাখছে।

এরপরও নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে অটোরিকশা সিএনজি চলাচল করায় বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় পুলিশ। এর প্রতিবাদে শুক্রবার শায়েস্তাগঞ্জের অটোরিকশা সংগঠনের শ্রমিকরা ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে মহাসড়কের নছরতপুর, দেউন্দি রাস্তার মোড় ও সিএনজি গ্যাস পাম্পের কাছে অবস্থান নেয়। পুলিশ তাদের সরে যেতে বললে নছরতপুরে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

শেয়ার করুন