যুক্তরাজ্য প্রবাসী মহিলার চাঁদাবাজির মামলায় কালিবাড়ির এমরানসহ ৬ জনের কারাদন্ড

সিলেটের সকাল রিপোর্ট॥ সিলেটে দ্রুত বিচার আইনে দায়ের করা একটি মামলার রায়ে নগরীর কালিবাড়ি এলাকার বাসিন্দা এমরানসহ ৬ আসামীর ৫ বছর করে কারাদন্ড হয়েছে। সিলেটের চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুজ্জামান হিরো মঙ্গলবার এ রায়। যুক্তরাজ্য প্রবাসী রঙ্গুলা বেগম তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির এ মামলা দায়ের করেন।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের মধ্যে নগরীর কালিবাড়ির আফতাব আলীর ছেলে এমরান ছাড়াও নগরীর পনিটুলা এলাকার বাসিন্দা কবির আহমদ ওরফে কাজী কবির, নেহারীপাড়ার হানিফ আহমদ ও হাওলদারপাড়ার হরমুজ আলীর ছেলে সোহেল আহমদ রয়েছেন। বাকি দুজন আসামীর নাম জানা যায়নি। আসামীদের মধ্যে সোহেল ও হানিফ বর্তমানে কারাগারে রয়েছে। বাকি চার আসামী পলাতক।
মামলার বিবরণীতে জানা গেছে, নগরীর মদীনা মার্কেট এলাকার নিবাস বি/২৭ এর বাসিন্দা যুক্তরাজ্য প্রবাসী আলতাব আলীর স্ত্রী রঙ্গুল বেগমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাসা দেখাশোনা করেন তার ভাগনা সৈয়দ কাউসার হোসেন। আসামীরা তার কাছ থেকে দুই লাখ টাকা চাঁদা নেয়। এরপর মাসিক ১৫ হাজার টাকা চাঁদা দিতে তারা তার ওপর চাপ সৃষ্টি করে। চাঁদা না দেয়ায় রঙ্গুলা বেগম বেগম ও কাউসারের ওপর হামলা করে তারা। ২০১৭ সালের ২৪ এপ্রিল কোতয়ালী থানা পুলিশ মামলাটি দ্রুত বিচার আইনে রেকর্ড করে।
সাক্ষ্য প্রমাণ গ্রহণশেষে মঙ্গলবার মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। রায়ে ৬ আসামীর প্রত্যেককে ৫ বছরের কারাদন্ড প্রদানের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের কারাদন্ড প্রদান করা হয় বলে দ্রুত বিচার আদালত সূত্র জানিয়েছে।

শেয়ার করুন