মরণোত্তর জাতীয় পুরস্কার পেলেন শ্রীদেবী

বিনোদন ডেস্ক :: ‘মম’ ছবিতে অসাধারণ অভিনয়ের জন্য মরণোত্তর ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী শ্রীদেবী। ৪৯ বছরের দীর্ঘ চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে অসংখ্য চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেও এবারই প্রথম সেরা অভিনেত্রী হিসাবে জাতীয় পুরস্কার পেলেন এই বলিউড দিবা।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি দুবাইয়ের এক হোটেলে মারা যান তিনি। এবার চলচ্চিত্রের সর্বোচ্চ সম্মান ‘দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার’ দেওয়া হচ্ছে বিনোদ খান্নাকে। তিনিও আর নেই। গত বছরের ২৭ এপ্রিল মুম্বাইয়ে মারা যান বলিউডের বরেণ্য এই অভিনেতা।

শুক্রবার দুপুরে নয়াদিল্লির শাস্ত্রী ভবনের পিআইবি কনফারেন্স রুমে ভারতের ৬৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। এবার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন জুরি বোর্ডের প্রধান চিত্র পরিচালক শেখর কাপুর। ১০ সদস্যের জুরি বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন চিত্রনাট্যকার ইমতিয়াজ হোসেন, গীতিকার মেহবুব, দক্ষিণী নায়িকা গৌতমী, কানাড়া ভাষার চিত্র পরিচালক পি শেষাদ্রী, অনিরুদ্ধ রায় চৌধুরী, রঞ্জিত দাস, রাজেশ মপুষ্কর, ত্রিপুরারি শর্মা ও রুমী জেফরি। জানা গেছে, আগামী ৩ মে নয়াদিল্লিতে ৬৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ।

এবার সেরা চলচ্চিত্রের পুরস্কার পেয়েছে আসামের ‘ভিলেজ রকস্টারস’। সেরা হিন্দি ছবি ‘নিউটন’। সেরা অভিনেতা হয়েছেন রিদ্ধি সেন। বাংলা ছবি ‘নগরকীর্তন’-এ অভিনয় করেছেন তিনি। ‘নগরকীর্তন’ ছবিটি সেরা মেকআপ আর্টিস্ট ও সেরা কস্টিউম ডিজাইনের পুরস্কারও পেয়েছে।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জেতার খবর শোনার পর কলকাতায় সংবাদমাধ্যমকে ঋদ্ধি সেন বলেন, ‘আমাকে মা প্রথম খবরটি দিয়েছেন। আমি সিনেমার পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলী এবং সহ-অভিনেতা ঋত্বিক দাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তবে নিজের পুরস্কার থেকেও ‘নগরকীর্তন’ স্পেশাল জুরি অ্যাওয়ার্ড পাওয়ায় বেশি খুশি হয়েছি। যে বিষয় নিয়ে সিনেমাটি তৈরি হয়েছে, তা এখন ভারতে খুবই কম হয়।’

সেরা জনপ্রিয় ছবির পুরস্কার পেয়েছে ‘বাহুবলী: দ্য কনক্লুশন’। ছবিটি সেরা স্পেশাল ইফেক্টস ও সেরা অ্যাকশন ডিরেকশনের পুরস্কারও পাচ্ছে। এ আর রহমান পেয়েছেন দুটি পুরস্কার—সেরা সংগীত পরিচালনা ও সেরা আবহ সংগীত।

এবার সেরা বাংলা ছবির পুরস্কার পেয়েছে ‘ময়ূরাক্ষী’। পরিচালনা করেছেন অতনু ঘোষ। ছবিতে অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, প্রসেনজিৎ, ইন্দ্রানী হালদার, গার্গি রায় চৌধুরী, সুদীপ্তা চক্রবর্তী প্রমুখ। শেখর কাপুর আরও ঘোষণা করেন, এবার কান চলচ্চিত্র উৎসবে এই ছবিটি ভারতে প্রতিনিধিত্ব করবে।

এক নজরে ভারতের ৬৫ তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার:

দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার: বিনোদ খান্না (মরণোত্তর)
সেরা ছবি: ভিলেজ রকস্টারস (আসাম)
সেরা অভিনেতা: রিদ্ধি সেন (বাংলা ছবি ‘নগরকীর্তন’)
সেরা অভিনেত্রী: শ্রীদেবী (হিন্দি ছবি ‘মম’)
সেরা পার্শ্ব অভিনেতা: ফাহাদ ফাজিল (মালায়ালাম ছবি ‘থন্ডিমুথালাম দৃকসাক্ষীউম’)
সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী: দিব্যা দত্ত (হিন্দি ছবি ‘ইরাদা’)

সেরা পরিচালক: জয়রাজ (মালায়ালাম ছবি ‘ভায়ানাকম’)
সেরা হিন্দি ছবি: ‘নিউটন’
সেরা বাংলা ছবি: ‘ময়ূরাক্ষী’
সেরা জনপ্রিয় ছবি: হিন্দি ছবি ‘বাহুবলী: দ্য কনক্লুশন’
সেরা শিশুতোষ ছবি: মূর্খ (মারাঠার ছবি)
সেরা জাতীয় পর্যায়ে ভূমিকা রাখা ছবি (নার্গিস দত্ত পুরস্কার) : মারাঠি ছবি ‘ধাপ্পা’
সেরা শিশুশিল্পী: ভনিতা দাস (আসামের ছবি ‘ভিলেজ রকস্টারস’)

সেরা সংগীতশিল্পী (পুরুষ) : কে জে যীশুদাস (‘পয় মারাঞ্জা কালাম’, মালায়ালাম ছবি ‘বিশ্বপুরভম মনসুর’)
সেরা সংগীতশিল্পী (নারী) : শশি তিরুপতি (‘ভান’, তামিল ছবি ‘কাত্রু ভেলিয়েদাই’)
সেরা গীতিকার: প্রহ্লাদ (কানাড়া ছবি ‘মার্চ ২২’-এর গান ‘মুথু রত্নাদা পিয়াতে’)
সেরা সংগীত পরিচালনা: এ আর রহমান (তামিল ছবি ‘কাত্রু ভেলিয়েদাই’)
সেরা আবহ সংগীত: এ আর রহমান (হিন্দি ছবি ‘মম’)

সেরা নবাগত পরিচালক (ইন্দিরা গান্ধী পুরস্কার) : পমপল্লী (ছবি ‘সিঞ্জর’)
সেরা সিনেমাটোগ্রাফি: মালায়ালাম ছবি ‘ভায়ানাকম’
সেরা অ্যাডাপ্টেড স্ক্রিনপ্লে: মালায়ালাম ছবি ‘ভায়ানাকম’
সেরা অরিজিন্যাল স্ক্রিনপ্লে: মালায়ালাম ছবি ‘থন্ডিমুথালাম দৃকসাক্ষীউম’
সেরা অডিওগ্রাফি: আসামের ছবি ‘ভিলেজ রকস্টারস’

সেরা সাউন্ড ডিজাইন: লাড়াখি ছবি ‘ওয়াকিং উইথ দ্য উইন্ড’
সেরা প্রোডাকশন ডিজাইন: সন্তোষ রমন (মালায়ালাম ছবি ‘টেক অফ’)
সেরা মেকআপ আর্টিস্ট: রাম রাজ্জাক (বাংলা ছবি ‘নগরকীর্তন’)
সেরা কস্টিউম ডিজাইন: বাংলা ছবি ‘নগরকীর্তন’)

সেরা স্পেশাল ইফেক্টস: হিন্দি ছবি ‘বাহুবলী: দ্য কনক্লুশন’
সেরা কোরিওগ্রাফি: গণেশ আচার্য (হিন্দি ছবি ‘টয়লেট এক প্রেম কথা’র গান ‘গোরি তু লাথ মার’)
সেরা অ্যাকশন ডিরেকশন: আব্বাস আলী মুঘল (হিন্দি ছবি ‘বাহুবলী: দ্য কনক্লুশন’)
স্পেশাল জুরি পুরস্কার: বাংলা ছবি ‘নগরকীর্তন’

শেয়ার করুন