বিশ্ব শৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে : ভ্লাদিমির পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, বিশ্বের চলমান পরিস্থিতি ‘বিশৃঙ্খল’ হয়ে পড়েছে এবং আন্তর্জাতিক সমাজ গঠনমূলক ভূমিকা পালন না করলে পরিস্থিতির আরো অবনতি হবে। তিনি বুধবার মস্কোয় কয়েকজন বিদেশি রাষ্ট্রদূতের পরিচয়পত্র গ্রহণের সময় দেয়া এক বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি দেয়ার পর পুতিন এ মন্তব্য করলেন। তিনি বলেন, ‘বাস্তবিক অর্থেই বিশ্ব পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হয়ে পড়েছে।’

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, আন্তর্জাতিক সম্পর্ককে আরো গঠনমূলক এবং জ্ঞান ও বিচারবুদ্ধিকে কাজে লাগানো হলেই কেবল বিশ্বে স্থিতিশীলতা ফিরে আসবে।

পুতিন বিদেশি রাষ্ট্রদূতদের আরো বলেন, অন্য দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক শক্তিশালী করার কাজে রাশিয়া যেকোনো গঠনমূলক পদক্ষেপকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত রয়েছে।

দৌমায় রাসায়নিক হামলার জেরে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর মাঝে ব্যাপক উত্তেজনা চলছে। সিরিয়া ইস্যুতে একই সুরে কথা বলছে, জার্মানি, ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্র। দৌমায় রাসায়নিক হামলার অভিযোগ এনে যেকোনো মুহূর্তে সিরীয় ভূখণ্ডে নতুন ধরনের স্মার্ট ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর হুমকি দিয়ে রাশিয়াকে প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, যেকোনো মুহূর্তে সিরিয়ায় হামলা চালাবে যুক্তরাষ্ট্র। আর এতে সমর্থন রয়েছে ওই তিন দেশের।

এদিকে থেমে নেই রাশিয়াও। মস্কো বলছে, মিত্র বাশার আল আসাদের সমর্থনে যেকোনো ধরনের গুরুতর পরিস্থিতি মোকাবেলায় পিছপা হবে না তারা।

যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়ার মাঝে চলমান এই উত্তেজনায় যোগ দিয়েছে ফ্রান্স। বৃহস্পতিবার ফরাসী প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেন, তার কাছে প্রমাণ আছে যে, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছেন।

ফরাসী এই প্রেসিডেন্ট বলেন, আমাদের উপযুক্ত সময় অনুযায়ীই এর জবাব দেয়া হবে।

সিরিয়া শাসকের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপে সমর্থনের ব্যাপারে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকেছেন। জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেল বলেছেন, ‘তার দেশ আগে থেকেই দাবি করে আসছে যে, সিরিয়া রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার নির্মূল করেনি এবং এটাই সত্যি।’

শেয়ার করুন