নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটিতে ক্যারিয়ার ডেভোলাপমেন্ট কনফারেন্স সম্পন্ন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অনেক শিক্ষার্থীই এখন বিচার বিভাগের চাকুরী করছেন। সরকারী চাকুরীর মধ্যে অন্য চাকুরীর চেয়ে বিচার বিভাগের সুযোগ সুবিধাও ভালো থাকায় মেধাবিরা এদিকে ঝুঁকছে। এক্ষত্রে ভূমিকা রাখছে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মান সম্মপন্ন শিক্ষা। আইন শিক্ষায় বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের প্রশংসাও করেন সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো: মাহফুজুর রহমান ভূইয়া।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি-ইউএসএআইডি’র যৌথ আয়োজনে কেরিয়ার ডেভোলাপমেন্ট কনফারেন্সের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
অনুষ্টানের উদ্বোধক ছিলেন এনইইউবি’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. আতফুল হাই শিবলী।

বিশেষ অতিথি এনইইউবি’র বোর্ড অব ট্রাষ্টিজ এর সদস্য ও লিগ্যাল এডভাইজার এমাদ উল্লাহ শহিদুল ইসলাম বলেন, সিলেটের আদালতে আরো নতুন নতুন আদালত স্থাপন করার সুযোগ রয়েছে। আদালতের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলে আইন পেশায় আরো বেশি মেধাবি শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থান হবে।

আইন পেশায় নারীদের নানা সংকট ও সম্ভাবনার কথা তুলে ধরে অনুষ্ঠানের অতিথি এডভোকেট মাহমুদা বেগম বলেন, আগের চেয়ে অনেক বেশি নারী আইনজীবি এখন কাজ করছেন আইন পেশায়।

এতে নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটির আইন ও বিচার বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, সহযোগি অধ্যাপক আবুল হাসনাত ইবনে আবেদিন সমাপনী বক্তব্যে অতিথিদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। অনুষ্ঠানে বিভাগের অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের বিভিন্ন সেমিস্টারের ৩৫ জন শিক্ষার্থী এতে অংশ নেন।

শেয়ার করুন