তাহিরপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী ও শ্বশুর আটক

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বানিয়াগাঁও গ্রামে এক  গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি গ্রামের শফিক মিয়ার স্ত্রী আসমা খাতুন (২৪)।

রোববার দুপুরে স্বামীর বসতবাড়ির সামনের একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে পুলিশ আসমা খাতুনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ নিহতের স্বামী শফিক মিয়া ও শ্বশুর আতারুপ মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের স্বজনরা জানান, উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের চরগাঁও গ্রামের আনোয়ার আলীর মেয়ে আসমা খাতুনের সঙ্গে একই উপজেলার পার্শ্ববর্তী শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বানিয়াগাঁও গ্রামের আতারুপ মিয়ার ছেলে সফিক মিয়ার সঙ্গে ৪ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের এক ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝগড়া হতো। গত শনিবার রাত ১০টার দিকে আসমা খাতুন তার স্বামী সফিকের সঙ্গে টর্চ লাইট নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আসমা খাতুনকে শফিক মিয়া বেধড়ক মারপিট করে। মধ্য রাতে শফিক মিয়া কয়লা বহন করার জন্য বড়ছড়া কয়লার ডিপোতে চলে যায়। রোববার সকালে প্রতিবেশী এক নারী শফিক মিয়ার বসতঘরের সামনে পরিত্যক্ত ঘরে আসমা খাতুনের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেন। বেলা ১২টার দিকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠায়।

তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ নন্দন কান্তি ধর বলেন, এ ঘটনায় নিহতের স্বামী শফিক মিয়া ও তার শ্বশুর আতারুপ মিয়াকে আটক করা হয়েছে।

শেয়ার করুন