গরমে পানিশূন্যতা প্রতিরোধে তরমুজ

গ্রীষ্মকালীন একটি জনপ্রিয় ফল তরমুজ। গরমে তরমুজ দেহ ও মনে শুধু প্রশান্তিই আনে না এর পুষ্টি ও ভেষজগুণ রয়েছে অনেক। প্রচণ্ড গরমে প্রাণ জুড়াতে তরমুজের শরবতের জুড়ি নেই। গ্রীষ্ম না আসলেও বাজারে এসেছে সবুজ তরমুজ।

গরমে প্রাণ জুড়াতে ঠান্ডা ঠান্ডা মিষ্টি স্বাদের তরমুজ খেতে ভালোবাসেন সবাই। বাইরে গাঢ় সবুজ আর ভেতরে টকটকে লাল রঙের আকর্ষণীয় এই ফলে রয়েছে প্রচুর পুষ্টিগুণ।

তরমুজ দেহের ভেতর থেকে পুষ্টি জোগানোর পাশাপাশি আমাদের ত্বকও সুন্দর রাখে। ভিটামিন এ, বি, সি সমৃদ্ধ তরমুজ ত্বককে সজীব করে, পাশাপাশি উজ্জ্বল ও নরম রাখে। তাই নির্দ্বিধায় এই ফলটি ব্যবহার করা যায় রূপচর্চার কাজে।

তরমুজ হার্টের জন্য খুবই উপকারি। রক্তবাহী ধমনীকে নমনীয় ও শীতল রাখে। স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধে বেশ কার্যকর।

কিডনির জন্য বেশ উপকারি ফল তরমুজ। ডাবের পানির যে গুণাগুণ, তরমুজেও রয়েছে সেই গুণাগুণ। কিডনি ও মুত্রথলিকে বর্জ্যমুক্ত করতে সহায়তা করে।

পানিশূন্যতা জাতীয় সমস্যা প্রতিরোধ করে তরমুজ। একই সঙ্গে রক্তচাপ কমায় ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

শেয়ার করুন