সুস্থতার জন্য চিন্তামুক্ত জীবন যাপনের তাগিদ

প্রকাশনা অনুষ্ঠানে ব্রিগেডিয়ার(অব:) আব্দুল মালিক


‌’সফলতা’র প্রকাশনা অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ

ডেস্ক রিপোর্ট:‘মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। পৃথিবীতে সফলতা, শান্তি-অশান্তি নির্ভর করে মানুষের কর্মকান্ডের উপর। মানুষের মধ্যে শরীর ও আত্মা আছে। শরীর ব¯ুÍ জগতের উপাদানে সৃষ্ট, স্থান ও কালের মধ্যে সীমাবদ্ধ এবং মরণশীল।’
গতকাল রোববার বিকেলে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের শহীদ সুলেমান হলে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি, তত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা, জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) ডা. আব্দুল মালিক এ কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, আত্মা, অদৃশ্য, অপার্থিব জগতের আল্লাহর গুণে গুণান্বিত সত্তা-মুক্ত, বন্ধনহীন, স্থান ও কালের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। মানুষ এ জীবনে সফল ও সুখী হতে চায়। এজন্য শরীর ও আত্মাকে সুস্থ রাখতে হবে ও জ্ঞান অর্জন করতে হবে। তিনি বলেন, শরীর সুস্থ রাখার জন্য স্বাস্থ্য রক্ষার নিয়ম, স্বাস্থ্যসম্মত খাবার, কায়িক পরিশ্রম, তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার না করা, চিন্তামুক্ত জীবন যাপন করতে হবে। মানুষের যখন জন্ম হয় তখন আত্মা পবিত্র ও নির্মল থাকে, জগৎ ও জীবন সম্পর্কে কিছুই জানে না।
ব্রিগেডিয়ার (অব.) মালিক বলেন, জীবন চলার পথে বিভিন্ন কারণে আত্মা কলুষিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কাজেই মানুষকে প্রকৃত সত্য জানতে হলে প্রবৃত্তি বা রিপু নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। এর ফলে আলোকিত মানুষ হওয়া সম্ভব। শিক্ষা মানুষকে প্রকৃত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলে। এই শিক্ষার সাথে মানুষকে নৈতিকতা ও মানবিক গুনাবলির বিকাশের শিক্ষা গ্রহন করতে হবে। শিক্ষা অর্জন, নিজ নিজ ধর্ম সম্পর্কে জানতে হবে। প্রত্যেক মানুষকে নৈতিকতা, বিবেকের দায়বদ্ধতা থেকে ¯্রষ্ঠার উপর বিশ্বাস রেখে সৃষ্টি ও মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করতে হবে। তিনি বলেন যে সমাজের যতবেশি মানবিক গুনাবলী বিকশিত মানব দরদি, আলোকিত সফল মানুষ থাকবে সেই সমাজে তত বেশি শান্তি বিরাজ করবে।
সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল হক এর সভাপতিত্বে এবং বাংলা টিভি’র সিলেট ব্যুারো চীফ আবু তালেব মুরাদ এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে আলোচক বৃন্দের মধ্যে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, একজন মানুষ ব্যক্তি জীবনকে আলোকিত করার পাশাপাশি সমাজ জীবনকে ও আলোকিত করার সুযোগ পায়। সফলতা বইটি ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি গাইড লাইন। যা অনুসরণ করলে ব্যক্তি ও সমাজ জীবন আলোকিত হবে।
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ব্রিগেডিয়ার ডা. মালিক আমাদের গর্ব। তিনি জীবনের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তার মত মহান ব্যক্তিত্ব বর্তমান সমাজ ব্যবস্থায় খুবই অপ্রতুল। তার লিখিত গ্রন্থটি সত্যিই তরুণ প্রজন্মের আলোকিত জীবন গড়ার সহায়ক শক্তি।
সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, পার্থিব জগতে মানুষ নিজেকে প্রতিটি ক্ষেত্রে সফল করতে চায়। এ সফলতা আনয়নের জন্য যে সব গুণাবলী দরকার তা এই সফলতা বইটিতে রয়েছে। লেখক অত্যন্ত সুন্দর ভাবে মানুষের মানবিক গুণাবলীকে সাবলিল ভাবে তুলে ধরেছেন।
দৈনিক সিলেটের ডাক’র নির্বাহী সম্পাদক সাংবাদিক ও গবেষক আব্দুল হামিদ মানিক বলেন, একজন মানুষ কিভাবে নিজেকে ব্যক্তি এবং সমাজ জীবনে প্রতিষ্ঠিত করে তুলতে পারে-তার নির্দেশনা রয়েছে সফলতা বইটিতে। দেশের খ্যাতিমান চিকিৎসক জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার ডা. মালিক শুধু ব্যক্তিগত জীবনে সফল না ভেবে গোটা সমাজ ব্যবস্থায় কিভাবে সফলতা অর্জন করা যায় তা ফুটিয়ে তুলেছেন অত্যন্ত নিখুঁত ভাবে।
লেখকের সুযোগ্য কন্যা ন্যাশনাল হার্ট ফাইন্ডেশন হাসপাতাল এন্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট এর চীফ কনসালটেন্ট কার্ডিওলজিষ্ট প্রফেসর ডাঃ ফজিলা-তুন-নেছা মালিক তার বক্তব্যে বলেন, ব্রিগেডিয়ার ডা. মালিক ব্যক্তি জীবনে একজন সফল পিতা হওয়ার পাশাপাশি সমাজ জীবনকে অনেক কিছু দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। সম্পূর্ণ নিজস্ব দায়বদ্ধতা থেকে মাটি ও মানুষের কল্যাণে সারাটি জীবন কাজ করে যাচ্ছেন। তার লিখিত সফলতা গ্রন্থটি একজন মানুষকে পরিপূর্ণ মানুষ হওয়ার পথ নিদের্শ করবে বলে আমি মনে করি।
সভাপতির বক্তব্যে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল হক বলেন, বাংলাদেশের কৃতি সন্তান ব্রিগেডিয়ার ডা. মালিক হৃদরোগ চিকিৎসার পথিকৃৎ। তার একক প্রচেষ্টায় আজ দেশে হৃদরোগ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তিনি জীবনের শুরু থেকেই মানুষের সেবা করে আসছেন। তার মতো মহান ব্যক্তিত্বের সান্নিধ্যে এসে দেশে অনেক জ্ঞানীগুনি চিকিৎসকের জন্ম হয়েছে। তার লিখিত সফলতা গ্রন্থটি আগামী প্রজন্মের জন্য এক দুলর্ভ সংগ্রহ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা হাবিবুর রহমান আবদাল, এসময় পুস্তক পরিচিতি তুলে ধরেন মাসিক গোলাপকঁড়ি সম্পাদক মুহাম্মদ মুনতাসির আলী।
লেখক পরিচিতি এবং লেখকের পরিশিষ্ট তুলে ধরেন সাংবাদিক আবু তালেব মুরাদ। অনুষ্ঠানে সিলেটের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এবং বিগ্রেডিয়ার (অব). আব্দুল মালিক এর সহধর্মীনি আশরাফুন নেছা মালিক, দুপুত্র মাসুদ মালিক, মঞ্জুরুল মালিক, পুত্রবধূসহ পরিবারের অন্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন