কোটাবিরোধীদের পুলিশের বাধা, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে পুলিশ। এ সময় দুই পক্ষে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। আর তিনজনকে আটক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি। বুধবার রাজধানীর হাইকোর্ট মোড় এই ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে মিছিলকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

সকালে রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ এর ব্যানারে জড়ো হন একদল শিক্ষার্থী। বেলা পৌনে ১১টায় সময় তারা পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ঘেরাও করতে মিছিল নিয়ে বের হয়।

মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, দোয়েল চত্বর হয়ে হাইকোর্ট চত্বরে গেলে আন্দোলনকারীদের আটকে দেয় পুলিশ। এ সময় সেখানেই রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে তারা। পরে পুলিশ তাদের ওপর কাঁদানে গ্যাস ছুড়লে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন আন্দোলনকারীরা। এ সময় দুই পক্ষে বেশ কিছু সময় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ সোহরাব, জাহির ও আরিফ নামের তিনজনকে আটক করেছে বলে জানিয়েছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান।

বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে নিয়োগে ৩০ শতাংশ কোটা সংরক্ষিত আছে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য। এর বাইরে ১০ শতাংশ নারী কোটা, পশ্চাদপদ জেলাগুলোর জন্য আরও ১০ শতাংশ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জন্য পাঁচ শতাংশ এবং এক শতাংশ কোটা আছে প্রতিবন্ধীদের জন্য।

এই কোটা ১০ শতাংশে নামিয়ে আনাসহ পাঁচ দফা দাবিতে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা। সরকারের শেষ বছরে প্রতিবারই এমন আন্দোলন হয়, যাতে মূলত মুক্তিযোদ্ধা কোটার বিষয়টি সামনে নিয়ে আসা হয়। আর এ কারণে এই দাবি নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়াও আছে।

শেয়ার করুন