সিলেট সেন্ট্রাল ডেন্টাল কলেজের ওরিয়েন্টেশন

সিলেট সেন্ট্রাল ডেন্টাল কলেজের ওরিয়েন্টেশনে বক্তব্য রাখছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফরিদ উদ্দিন আহমদ

ডেস্ক রিপোর্ট:শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ বলেছেন, চিকিৎসকরা শুধু আর্থিক নয়, সেবার মানসিকতা নিয়ে কাজ করতে হবে। কারণ, ডাক্তারদের সামান্যতম ত্রুটির কারণে একটি পরিবার বিপর্যস্ত হতে পারে। শুধু পরিবার নয় সমাজও ক্ষতির সম্মুখিন হতে পরে। তিনি বলেন, প্রবাসে ডাক্তারদের ব্যবহারে রোগী অর্ধেক ভালো হয়ে যায়। সে দিক থেকে আমরা কিছুটা পিছিয়ে রয়েছি। তিনি শিক্ষার্থীদের দক্ষতা অর্জন, ভালো ব্যবহার ও ইংরেজিতে দক্ষতা অর্জনের আহ্বান জানান।
মঙ্গলবার সিলেট সেন্ট্রাল ডেন্টাল কলেজ ও আল আমিন নার্সিং কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের বিডিএস ও নার্সিং কোর্সের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। নগরীর মেন্দিবাগের একটি হোটেলে এ ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
উপাচার্য আরো বলেন, সাধারণ মানুষ অনেক ক্ষেত্রে চিকিৎসকদের উপর নির্ভরশীল হয়, অসহায় অবস্থায় মানুষ ডাক্তারের কাছে স্মরণান্ন হয়; এসময় তাদের চিকিৎসা দিতে হবে সেবার মনমানসিকতা নিয়ে।
অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিদেশে নার্সিং পেশার যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। কিন্তু এ পেশায় আমাদের দক্ষ জনশক্তির অভাব রয়েছে। ফলে আমরা দক্ষ জনশক্তি রপ্তানি করতে পারছিনা।
তিনি নবাগত শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, তোমরা যারা নার্সিং পেশায় এসেছো তাদের দক্ষতা অর্জন করতে হবে। আর্তপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে।
তিনি উপস্থিত অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, তথ্য প্রযুক্তি ভালোর চেয়ে মন্দের ব্যবহার বেশি হচ্ছে। এক্ষেত্রে অভিভাবকদের সন্তানের ব্যাপারে আরো সচেতন হতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে সন্তানরা বিপদগামী হচ্ছে কি না।
এ সময় উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ সিলেট সেন্ট্রাল ডেন্টাল কলেজ ও আল আমিন নার্সিং কলেজকে শাবির পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, আল আমিন এসোসিয়েটসের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আজিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, আল আমিন এসোসিয়েটসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ডা. এম এ ওয়াহিদ, সেন্ট্রাল ডেন্টাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. এম এ গাফফার ও আল আমিন নার্সিং কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মেহেরুন নেছা বেগম।
অনুষ্ঠানে এসোসিয়েটসের পরিচালকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, জহির বক্স, আব্দুল কাইয়ূম, আব্দুর রহিম, ডা. শফিকুল ইসলাম তালুকদার, ডা. হাসান তারেক বিন, মাহবুবুল হক, ডা. বাহার, সামছুল হোসেন, চন্দন সাহা, ডা. এমএ রকিব, অঞ্জন কুমার দাস, ডা. সাকিনা শাহান চৌধুরী, ডা. কাকলী দাস প্রমুখ।
পরিচালনায় ছিলেন শিক্ষার্থী ফাতেমাতুজ জোহরা ও বদরুল ইসলাম রিমন। পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জুয়েল আহমদ। অনুষ্ঠানে সিলটিভির পরিচালক জুবায়ের আহমদ চৌধুরীসহ আল আমিন এসোসিয়েটসের পরিচালকবৃন্দ ও অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন সিলেট সেন্ট্রাল ডেন্টাল কলেজ ও আল আমিন নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা।-

শেয়ার করুন