বিয়ানীবাজারে মুক্তিযোদ্ধা সুনাম উদ্দিনের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি :: সিলেটের বিয়ানীবাজারে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সুনাম উদ্দিনের জানাযার নামাজ মঙ্গলবার বেলা সোয়া দুইটায় স্থানীয় সুনাতলা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাযায় মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বিপুল সংখ্যক লোক অংশগ্রহণ করেন।

এদিকে জানাযার নামাজের পূর্বে পুলিশের একটি চৌকশদল মুক্তিযোদ্ধা সুনাম উদ্দিনকে রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদর্শন করে। পরে তাঁর মরদেহ পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও তিন মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি লাউতা ইউনিয়নের কালাইউরা গ্রামের রস্তুম আলীর ছেলে।

এদিকে মুক্তিযোদ্ধা সুনাম উদ্দিনের মরদেহ সামনে রেখে তাঁর দুঃসাহসিক জীবন নিয়ে সংক্ষিপ্ত স্মৃতিচারণ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান, কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আসুক আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আহাদ কলা, লাউতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ জলিল, শিক্ষামন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল ও মরহুমের ভাতিজা সাংবাদিক আবু তাহের রাজু।

শোক প্রকাশ: বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সুনাম উদ্দিনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি। এক শোকবার্তায় তিনি মরহুমের রূহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।

এছাড়াও শোক প্রকাশ করেছেন বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজি আব্দুল হাছিব মনিয়া, যুক্তরাজ্য আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান মুন্না, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক জুবের আহমদ, বিয়ানীবাজার রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাংবাদিক ছাদেক আহমদ আজাদ ও সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলম হৃদয়।

গত ২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার মুক্তিযোদ্ধা সুনাম উদ্দিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। পরদিন বাদ জোহর নিউইয়র্কের ব্রঞ্চের পারচেস্টার জামে মসজিদে তাঁর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এরপর মরহুমের ছোট ভাই ডা. আব্দুল আহাদ তাঁর মরদেহ নিয়ে ঢাকায় আসেন। গত সোমবার সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মুক্তিযোদ্ধা সুনামের মরদেহ গ্রহণ করেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান খান।

উল্লেখ্য, মুক্তিযোদ্ধা সুনাম উদ্দিন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য, জেলা কমান্ডের সাবেক অর্থ সম্পাদক এবং উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের সাবেক কমান্ডার ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন থেকে নিউইয়র্কে পরিবার নিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করতেন।

শেয়ার করুন