চুনারুঘাটে আদম ব্যবসায়ীর খপ্পরে পড়ে একটি পরিবার এখন দিশেহারা

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা : চুনারুঘাটের এক দিনমজুর যুবক এক আদম ব্যবসায়ীর খপ্পরে পড়ে ও কাতারে নির্যাতনের শিকার হয়ে এখন দিশেহারা। অনেক স্বপ্ন ও আশা নিয়ে পরিবারের শেষ সম্বলটুকু জমি-জমা, ভিটে-মাটি বিক্রি করে কাতার প্রবাসী এক আদম ব্যবসায়ীর নিকট ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করে রুবেলের পরিবার। স্বপ্ন ছিল বিদেশ পাড়ি জমিয়ে পরিবারের অভাব অনটন দূর করার পাশাপাশি স্বাচ্ছ্যন্দে জীবন-যাপন করবে ; কিন্তু সে স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে গেল রুবেল মিয়ার।

অভিযোগে জানা যায়, গত ২৮ জানুয়ারী চুনারুঘাট উপজেলার দ্বি-মাগুরউন্ডা গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের পুত্র রুবেল মিয়াকে (৩০) একই উপজেলার গণেশপুর গ্রামের আছির মোহাম্মদের পুত্র মকসুদ আলী ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে ড্রাইভিং ভিসা দেখিয়ে কাতারে নেয় । কিন্তু দালাল মকসুদ মিয়া রুবেলকে ড্রাইভিং এর কাজ না দিয়ে বাসা বাড়ী ধোঁয়া মোছার কাজ দেয়। এ সময় রুবেল মিয়া এ কাজ করতে অস্বীকার করলে দালাল মকসুদ মিয়া রুবেলের উপর অমানুষিক নির্যাতন চালায় এবং গত ৫ ফেব্রুয়ারি জোর করে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়। বর্তমানে নির্যাতনের শিকার রুবেল মিয়া চুনারুঘাট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

এদিকে, টাকা হারানোর ব্যথা, অন্যদিকে দালাল মকসুদ আলী কর্তৃক ছেলের নির্যাতনের বর্ণনা শুনে রুবেলের মা ও তার পরিবার এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় প্রশাসনের নিকট প্রতারক ও আদম ব্যবসায়ী মকসুদ আলীর বিচার দাবী করছে নির্যাতনের শিকার বিদেশ ফেরত অসহায় রুবেলের পরিবার।

শেয়ার করুন