এপ্রিলের ১ম সপ্তাহে সিলেটে আইসিটি মেলা

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের উদ্যোগে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে আইসিটি মেলা অনুষ্ঠিত হবে। মেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় প্রধান অতিথি হিসেবে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। মঙ্গলবার সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সাব-কমিটির সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

কমিটির আহবায়ক ও সিলেট চেম্বারের পরিচালক জনাব মুকির হোসেন চৌধুরীর সভায় সভাপতিত্ব করেন। ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সভাপতির বক্তব্যে মুকির হোসেন চৌধুরী বলেন, এই সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে হাই-টেক শিল্পের বিকাশ, মৌলিক অবকাঠামো তৈরীর মাধ্যমে ইলেক্ট্রনিক্স সিটি তথা হার্ডওয়্যার শিল্প প্রতিষ্ঠা করা এবং আইসিটি শিল্প প্রতিষ্ঠার জন্য হাই-টেক পার্ক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

এছাড়াও হাই-টেক শিল্পের বিকাশে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য ব্রীজ নির্মাণ প্রকল্প সম্পন্ন করা হয়েছে। হাই-টেক পার্ক নির্মাণের কারণে এবং শিল্পের বিকাশের মাধ্যমে ৫০ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। গত ০৪ ফেব্রুয়ারী সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনায়েদ আহমেদ পলক, এমপি আইটি বিজনেস সেন্টার এবং ব্রীজ নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন কাজের আনুষ্টানিক উদ্বোধন করেন।

তিনি বলেন, এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে সিলেট থেকে একদল প্রশিক্ষিত তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষ জ্ঞান সম্পন্ন যুবক তৈরী করতে হবে-যাদের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের ছোঁয়া ছড়িয়ে পড়বে সর্বত্র। তিনি বলেন, সিলেটে ব্যাপক ক্যাম্পিং এবং প্রশিক্ষণ সেন্টার গড়ে তুলতে সিলেট চেম্বারের আইসিটি বিষয়ক কমিটি কাজ করে যাবে নিরলসভাবে।

সভায় চেম্বার সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, আইসিটি খাতে দেশকে এগিয়ে নিতে বর্তমান সরকার বদ্ধ পরিকর। সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে দেশের সর্বপ্রথম হাই-টেক পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ এ সরকারের একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত। তিনি উল্লেখ করেন, গত ০৪ ফেব্রুয়ারী আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদ পলক সিলেট হাই-টেক পার্কের আইটি বিজনেস সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন, যা সিলেটের এ খাতের উদ্যোক্তাদের জন্য অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক। এখানে প্রায় ৫০ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে তিনি জানান।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি জনাব মাসুদ আহমদ চৌধুরী, পরিচালক ও আইসিটি সাব কমিটির যুগ্ম আহবায়ক জনাব আব্দুর রহমান, জনাব হুমায়ুন আহমদ, জনাব মুজিবুর রহমান স্বাধীন, জনাব খন্দকার ইসরার আহমদ রকি, সদস্য জনাব এ এস এম জি কিবরিয়া, জনাব মোহাম্মদ বিন আব্দুর রশীদ, জনাব তারেক হাসান, জনাব আহমদ মাসুদ হায়দার জালালাবাদী, জনাব ইফতেখার আহমদ চৌধুরী, জনাব আলী আহমদ খান, জনাব মো. নজিরুল আলম সুমন, জনাব মো. এুহিব হোসেন, জনাব তাজিদুর রহমান তাজুল, জনাব সাখায়াত আলী, জনাব বাবর হোসেন, জনাব জি এম আব্বাস, জনাব ফজলুর রহমান, জনাব মঈন উদ্দিন লোদী, জনাব আব্দুস সোবহান, জনাব সাহারুল কিবরিয়া, জনাব রায়হান মাসুদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন