অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং বিএনপি নেতা-কর্মীদের হয়রানি বন্ধের দাবি

খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মুনতাসির আলীর বিবৃতি

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সাজা এবং দলের নেতা-কর্মীদের হয়রানি এবং একের পর এক মামলার দায়েরের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশত করেছেন খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব ও ২০ দলীয় জোটের নেতা মুহাম্মদ মুনতাসির আলী। এক বিবৃতিতে তিনি এ উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, এই মামলায় খালেদা জিয়া ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতেই বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেওয়া হয়েছে। যে ঘটনার সাথে খালেদা জিয়ার ন্যূনতম কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই, সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাঁকে পাঁচ বছরের যে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে, তাতে এই কথা স্পষ্ট, তিনি মোটেই ন্যায়বিচার পাননি।’

বিবৃতিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘জাতীয় নির্বাচনের আগে একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও জনপ্রিয় নেত্রীকে এভাবে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে নির্বাচনের বাইরে রাখতে চায়। এতে দেশের রাজনৈতিক সংকট আরো ঘনীভূত হবে বলে শঙ্কা করেন তিনি।’ তিনি অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তি দাবি করেন।

বিবৃতিতে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির সভাপতি-সম্পাদকসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আন্দোলন দমিয়ে রাখতেই বিএনপি নেতাদের মামলা দিয়ে হয়রানী করা হচ্ছে। তিনি অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান।’

শেয়ার করুন