সিলেটের লাইব্রেরীগুলোতে নতুন বই রাখার তাগিদ অর্থমন্ত্রীর

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ লাইব্রেরী আন্দোলনের মাধ্যমে দেশের চরিত্র বদলে দেয়া সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি। তিনি বলেন, শিক্ষা একটি চলমান প্রক্রিয়া। এখন দেশে শিক্ষার হার বেড়েছে। ভাল বই হাতে তুলে দিলে যে কেউ পড়তে পারবে। তিনি সিলেটের লাইব্রেরীগুলোতে নতুন বই রাখার তাগিদ দেন।
শুক্রবার সন্ধ্যায় সিলেটের নাগরি লিপি বই উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
নগরীর রিকাবীবাজারস্থ কবি কাজী নজরুল অডিটোরিয়ামে গবেষক ও চার্টার্ড অ্যাকাউনটেন্ট মসীহ মালিক চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ভাষা সৈনিক ও সিলেট মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির এমিরেটাস প্রফেসর মো. আব্দুল আজিজ, বরেণ্য শিশু সাহিত্যিক আলী ইমাম, ভাষা গবেষক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. সৌরভ শিকদার, বাংলাদেশ মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের পরিচালক কাবেদুল ইসলাম। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন সিলেটি নাগরি লিপি গবেষক ও উৎস প্রকাশন এর নির্বাহী পরিচালক মোস্তফা সেলিম।
অনুষ্ঠানে ‘নাগরি স্যার’ খ্যাত অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক এরহাসুজ্জামানকে সম্মাননা পুরস্কার প্রদান করা হয়। পরে সিলেটের ২শ’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও গ্রন্থাগারকে সিলেটি নাগরি লিপিতে রচিত ২৫টি বই প্রদান করে উৎস প্রকাশন। মঞ্চে উপস্থিত হয়ে বই গ্রহণ করেন সিলেট কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ ড. মোস্তাক আহমাদ দীন, গোবিন্দগঞ্জ আব্দুল হক স্মৃতি কলেজ’র অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক।
এর আগে নাগরি লিপিতে রচিত শিতালং শাহ, আরকুম শাহের তিনটি গানে নৃত্য পরিবেশন করে স্থানীয় নৃত্যশিল্পীরা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে নাগরি লিপিতে রচিত পুঁথিপাঠ, সংগীতানুষ্ঠান ও মঞ্চ নাটক পরিবেশন করা হয়। হলভর্তি দর্শক গভীর মনোযোগে উপভোগ করেন পুঁথিপাঠ। । পরে নাটক মঞ্চস্থ করে নবশিখা নাট্যদল। অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও সাবেক রাষ্ট্রদূত ড. এ কে আব্দুল মোমেন, সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বিজিত চৌধুরীসহ অনুষ্ঠানে সুশীল সমাজের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।অনুষ্ঠান শেষে অর্থমন্ত্রী চলে যান আম্বরখানা মণিপুরী পাড়ায়। সেখানে পাঁচ দিনব্যাপি ২৮তম মহানামযজ্ঞ বার্ষিক অনুষ্ঠান পরিদর্শন করেন অর্থমন্ত্রী। শ্রীশ্রী রাধাগোবিন্দ জিউর মন্দিরে ২৮তম ১৬ প্রহরব্যাপী শ্রীশ্রী হরিনাম মহানামযজ্ঞ উৎসব পরিদর্শনকালে অর্থমন্ত্রীকে স্বাগত জানান সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ ও ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী।

শেয়ার করুন