জাফলংয়ে পিয়াইন নদীতে অস্থায়ী সেতু নির্মাণের দাবিতে বিক্ষোভ

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি :: সিলেটের সীমান্তবর্তী জাফলংয়ের পিয়াইন নদীর পশ্চিম অংশ থেকে উত্তোলনকৃত পাথর পরিবহনের সুবিধার্তে নদীতে অস্থায়ী সেতু নির্মাণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয় পাথর ব্যবসায়ী ও শ্রমিকরা। সেখানে নদীতে মাটি ভরাট করে নির্মিত একটি অস্থায়ী সেতু স্থানীয় প্রশাসন কর্তৃক উচ্ছেদের পর শনিবার বিকেলে তারা বিক্ষোভ করেন।

ব্যবসায়ীদের দাবি, তারা সনাতন পদ্ধতিতে পাথর উত্তোলন করছেন। কিন্তু সেতু না থাকায় পাথর সরবরাহ করা যাচ্ছে না। এতে তারা ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছেন। সেতু নির্মাণ না করা হলে আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন তারা।

জাফলং বল্লাঘাট পাথর ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতি, পিয়াইন পাথর ব্যবসায়ী সমিতি,পশ্চিম জাফলং পাথর উত্তোলন শ্রমিক বহুমুখী সমবায় সমিতি, জাফলং পাথর উত্তোলন ও সরবরাহ বহুমুখী সমবায় সমিতি’র যোথ উদ্যোগে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

বল্লাঘাট পাথর ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম খাঁর সভাপতিত্বে ও পশ্চিম জাফলং পাথর উত্তোলন শ্রমিক বহুমুখী সমবায় সমিতি’র সেক্রেটারী হেলাল উদ্দিনের পরিচালনায় মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তব্য রাখেন বল্লাঘাট পাথর ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতির সহ-সভাপতি ইসমাইল হোসেন, পিয়াইন পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জাকির হোসেন ও সেক্রেটারী আব্দুল মালিক, জাফলং পাথর উত্তোলন ও সরবরাহ বহুমুখী সমবায় সমিতি’র সভাপতি আব্দুস শহিদ, জাফলং ট্রাক চালক সমবায় সমিতির সভাপতি ফয়জুল ইসলাম, পশ্চিম জাফলং পাথর উত্তোলন শ্রমিক বহুমুখী সমবায় সমিতি’র সভাপতি ফারুক আহমদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, প্রতি বছর শীতকালে পিয়াইনের দুই তীর মাটি ভরাট করে অবৈধভাবে ছোট অস্থায়ী সেতু নির্মাণ করে পাথর ব্যবসায়ীরা। যা পরিবেশ বিপর্যয়ের পাশাপাশি নদীতে নৌকা চলাচলেও প্রতিবন্ধতা সৃষ্টি করে। এতে ভোগান্তিতে পড়েন পর্যটকরাও। চলতি বছরেও সেখানে সেতু নির্মাণ করা হয়েছিল। তবে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ পরিবেশনের পর গত সপ্তাহে সেতুটি উচ্ছেদ করে স্থানীয় প্রশাসন।

শেয়ার করুন