সিলেটে শ্রুতির দিনব্যাপী আবৃত্তি উৎসব

সিলেটের সকাল ডেস্ক:: “শাণিত হোক প্রাণিত হোক সত্য শব্দ কবিতা” প্রতিপাদ্য নিয়ে ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক সংগঠন শ্রুতির দিনব্যাপী আবৃত্তি উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ সোমবার সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে সকাল ১০ টায় মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে উৎসবের উদ্বোধন করেন ভবতোষ বর্মণ রান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার ফয়সল মাহমুদ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক গৗতম চক্রবর্তী, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, আবৃত্তি শিল্পী ফারজানা করিম, জয়দেব সাহা এবং তামান্না ডেইজী।
আলোচনা সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শ্র“তি সদস্য সচিব সুকান্ত গুপ্ত। আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন শ্র“তি সমন্বয়ক সুমন্ত গুপ্ত। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, আধুনিককালে বাংলা ভাষায় আবৃত্তি নবতর প্রসার ঘটে বিশ শতকের গোড়ার দিকে। প্রাচীনকাল থেকে আবৃত্তির পাঠ শুরু। রবীন্দ্র কবিতার আবৃত্তি দিয়েই মূলত আধুনিক আবৃত্তি চর্চার শুরু। আবৃত্তি সব শাস্ত্রের বোধর চেয়ে গৌরবের। বৈদিক ভাষা যখন রচিত হয় তখন লেখার কোন পদ্ধতি আমাদের জানা ছিলনা। বৈদিক কবিরা রচনা করতেন মুখে মুখে এবং সেরচনা কাগজে লিখে রাখবার মতোই ধরে রাখতেন মুখে মুখে আবৃত্তির সাহায্যে। বৈদিক সাহিত্য আবৃত্তির মাধ্যমে যুগে যুগে বাহিত হবার আরো একটি কারণ ছিল।
এ প্রসঙ্গে সুকুমার সেন বলেন- লেখার চেয়ে আবৃত্তির উৎকর্ষ বেশি। লেখার ভাষাতে যতটুকু ধরা পরে না । না কন্ঠস্বর না সুরের টান, না ঝোঁক। কিন্তু আবৃত্তিতে এসব কিছুই যথাযথ বজায় থাকে। বক্তারা শ্র“তি আয়োজিত দিনব্যাপী আবৃত্তি উৎসবের সফলতা কামনা করেন।
দিনব্যাপী আয়োজন মালায় ছিল শতকন্ঠে আবৃত্তি, সম্মিলিত পরিবেশনা, একক পরিবেশনা, নৃত্য, মঙ্গলঢাক, কবি কন্ঠে কবিতা, আনন্দ আড্ডা, আবৃত্তিমেলা এবং আবৃত্তি প্রতিযোগিতা। সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হয় বিষয় ও বিভাগ ভিত্তিক আবৃত্তি প্রতিযোগিতা। একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন বরেণ্য আবৃত্তিশিল্পী মাহিদুল ইসলাম, ফারজানা করিম, জয়দেব সাহা, আহসান উল্লাহ তমাল,তামান্না ডেইজী। আরো আবৃত্তি পরিবেশন করেন সিলেটের আমন্ত্রিত আবৃত্তি শিল্পী শামীমা চৌধুরী, জ্যোতি ভট্টাচার্য্য, নন্দীতা দত্ত এবং শামীমা পারভীন। সমবেত আবৃত্তি পরিবেশন করবে চারুবাক,দ্বৈতস্বর,মৃত্তিকায় মহাকাল, ছন্দনৃত্যালয়, পাঠশালা। কবিকন্ঠে কবিতা পর্বে অংশ নেন কবি শেরাম নিরঞ্জন, কবি শামসুল আলম সেলিম,কবি কাসমির রেজা প্রমুখ। দ্বিতীয় অধিবেশনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের মেয়র জনাব আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী পরিচালক এনামুল হাবিব প্রমুখ। দিনব্যাপী আয়োজনে অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণে ছিল আবৃত্তিমেলা।

শেয়ার করুন