রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের মধ্যস্থতা চান খালেদা

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন চীনা কমিউনিস্ট পার্টির একটি প্রতিনিধিদল।বৃহস্পতিবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির ইন্টারন্যাশনাল ডিপার্টমেন্টের (আইডিসিপিসি) সহকারী মন্ত্রী ওয়াং ইয়াজুনের নেতৃত্বে ৬ সদস্যের প্রতিনিধিদল এই সাক্ষাৎ করে।
.
রাত পৌনে সাতটা থেকে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী খালেদা জিয়ার সঙ্গে প্রতিনিধিদলের সদস্যদের কথা হয় বলে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া চীনা প্রতিনিধিদলের সঙ্গে রাখাইনে নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলিম ইস্যুতে কথা বলেছেন। তিনি রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকায় চীনকে দেখতে চেয়েছেন। এতে করে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের নির্যাতিত রোহিঙ্গারা দ্রুত নিজ দেশে ফেরত যেতে পারবে। এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে চীনের প্রতিনিধিদলকেও তিনি অনুরোধ করেছেন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘জবাবে তারা (চীনের প্রতিনিধিদল) বলেছেন- এ ব্যাপারে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশে এসেছিলেন, কথা বলেছেন। তারা চেষ্টা করছেন, দু’দেশের মধ্যে ভালো সম্পর্ক তৈরি করতে, যাতে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়।’

বৈঠকে খালেদা জিয়া আশা প্রকাশ করেন, চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের যে সম্পর্ক, তা আরো গভীর হবে এবং শুধু আঞ্চলিক ক্ষেত্রেই নয়, বৈশ্বিক ক্ষেত্রেও চীন তার ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

বৈঠকে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির সদ্যসমাপ্ত ১৯তম কংগ্রেস ও ‘ওয়ার্ল্ড পলিটিক্যাল পার্টি ডায়ালগ’র বিষয়বস্তু এবং সিদ্ধান্তসমূহ খালেদা জিয়াকে ব্রিফ করেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।

চীনের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে খালেদা জিয়ার সাক্ষাতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়াও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য রিয়াজ রহমান ও সাবিহউদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন