রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের নির্বাচন ২০ ডিসেম্বর

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের নির্বাচন ৬ ডিসেম্বরের পরিবর্তে আগামী ২০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। সেই সাথে ঘোষিত তফসিল, ভোটার তালিকা এবং প্রার্থী তালিকা অপরিবর্তিত থাকবে। বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের এ্যাপিলেট ডিভিশনের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ গতকাল সোমবার এ রায় প্রদান করেন।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা হয় গত ৪ নভেম্বর। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ হয় ৬ ডিসেম্বর। মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের তারিখ নির্ধারণ হয় ১৩-১৫ নভেম্বর। ্এদিন বিকেলেই মনোনয়নপ্রত্র দাখিলের সময় নির্ধারণ হয়। এর আগে ১২ নভেম্বর চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশিত হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এবারের নির্বাচনে চূড়ান্ত ভোটার হিসেবে নির্বাচিত হন ৪ হাজার ১’শ জন আজীবন সদস্য ও ৬৬ জন বার্ষিক সদস্য। নির্বাচন কমিশনার হিসেবে লোকমান আহমদ এবং সচিব হিসেবে দায়িত্ব পান মো. আলা উদ্দিন।

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের ৭ টি পদে নির্বাচনের জন্য প্রার্থীরা মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেন।

তবে, ১৩ নভেম্বর রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব সিলেট ইউনিটের ঘোষিত তফসিল স্থগিত করে পদাধিকার বলে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট লুৎফুর রহমানকে চেয়ারম্যান ও এডভোকেট নিজাম উদ্দিনকে সেক্রেটারী করে এডহক কমিটি গঠন করেন।

এ প্রেক্ষিতে বর্তমান কমিটির সেক্রেটারী আব্দুর রহমান জামিল এবং আজীবন সদস্য নুরুল ইসলাম সোহেল এডহক কমিটি বাতিল এবং নির্বাচন বহাল চেয়ে হাই কোর্টে রীট মামলা দায়ের করেন। এডহক কমিটি বাতিল করে ২০ নভেম্বর হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ রায় প্রদান করে। পরবর্তীতে এ রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রীম কোর্টে আপিল করা হলে সেখানেও এডহক কমিটি বাতিল করে নির্বাচন সম্পন্ন করার বিষয়টি বহাল থাকে।

সর্বশেষ গতকাল সোমবার সুপ্রীম কোর্টের এ্যাপিলেট ডিভিশনের পূর্ণঙ্গ বেঞ্চ পূর্ণাঙ্গ শুনানী শেষে আগামী ২০ ডিসেম্বর বুধবার নির্বাচনের তারিক ঘোষণা করে। সেই সাথে ঘোষিত তফসিল, ঘোষিত ভোটার তালিকা এবং চূড়ান্ত প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী তালিকা অপরিবর্তিত রাখার নির্দেশ দেয়া হয়। পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চের রায়ে আরো বলা হয়, নির্বাচন কমিশনার হিসেবে লোকমান আহমদ ও সচিব মো: আলা উদ্দিন পদত্যাগ করায় সিলেট জেলা বারের বর্তমান সভাপতি এডভোকেট মোঃ লালা ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক হোসেন আহমদ যথাক্রমে নির্বাচন কমিশনার এবং সচিবের দায়িত্ব পালন করবেন।

শুনানীতে বাদী পক্ষে (রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি) ছিলেন এটর্নী জেনারেল মাহবুবে আলম ও এডভোকেট তবারক হোসেন।

অপর পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মোহম্মদ, এডভোকেট শাহ মোহাম্মদ ইজাজ রহমান, এডভোকেট মোস্তাক আহমদ চৌধুরী ও ব্যারিস্টার রিজওয়ানা ইউসুফ। এডভোকেট মোস্তাক আহমদ চৌধুরী এ্যাপিলেট ডিভিশনের এ রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শেয়ার করুন