‘মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সু-শৃঙ্খল ও আত্ম-বিশ্বাসী হয়ে উঠা যায়’

সিলেটের সকাল ডেস্ক।। ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান প্রকৌশলী শহিদুর রহমান রুমান বলেছেন, মার্শাল আর্টস একটি ডিসিপ্লিন গেম। মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণ গ্রহণ করলে নিয়ম শৃঙ্খলা ও আত্ম-বিশ্বাসী হয়ে উঠা যায় এবং এর মধ্য দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা সু-শৃঙ্খল হওয়ার পাশাপাশি সুস্থ ও সুন্দর জীবন গঠন করতে সক্ষম হয়। তাছাড়া মার্শাল আর্টস হৃদরোগ ও হাড়-ব্যথাসহ বিভিন্ন শারিরিক সমস্যা প্রতিরোধে সাহায্য করে। এসময় তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ ব্লাক ড্রাগন একাডেমি ফেঞ্চুগঞ্জ শাখা এলাকার যুবক সমাজকে মাদকাসক্তি ও সামাজিক অবক্ষয় থেকে বাঁচিয়ে রাখতে পারবে বলে বিশ্বাস করি।
বোববার বাংলাদেশ ব্লাক ড্রাগন মার্শাল আর্টস একাডেমী ফেঞ্চুগঞ্জ শাখার উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
বিশিষ্ট ক্রীড়ানুরাগী মো. ফিরোজ মিয়ার সভাপতিত্বে ও ফরহাদ রেজার সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা কারাতে এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ব্লাক ড্রাগন মার্শাল আর্টস একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও প্রধান প্রশিক্ষক এম.এ.এ মাসুদ রানা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শাবিপ্রবির কারাতে প্রশিক্ষক এবিএম আশরাফুল ইসলাম, সিলেট জেলা (পূর্ব) তালামীযের সভাপতি মুহাম্মদ আব্দুল খালিক রুহিল শাহ, সিলেট জেলা কারাতে এসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক সাহিদুল ইসলাম সৌমিক, বিয়ালীবাজার উজ্জীবন যুব সংঘের সভাপতি সাইফুর রহমান চৌধুরী শিপ, উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি জালাল আহমদ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট মুরব্বী ছতু মিয়া, আব্দুল খালিক, রুনু মিয়া, রানিক মিয়া, মুক্তা মিয়া, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা তালামীযের সহ সভাপতি হাবিবুল ইসলাম সাকিব, সাধারণ সম্পাদক এম শাহ জাহান সাদী, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুল ইসলাম কুদ্দুস, ফেঞ্চুগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি জুবের আহমদ সনি প্রমুখ।

শেয়ার করুন