মাদার তেরেসা পুরস্কার পেলেন প্রিয়াঙ্কা

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: বলিউডের পর এখন হলিউডেও নিজেকে জনপ্রিয় করে তুলেছেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সমবয়সী কিংবা সহকর্মীদের অনেকেই বিয়ে করে সংসার শুরু করলেও ব্যতিক্রম এই নায়িকা। তার কথায়, ‘অনেক সংসার ভেঙে যেতে দেখেছি। যারা আমার কাছের বন্ধু। এগুলো দেখে খুব খারাপ লাগে। আমি সংসার ভাঙার শিরোনাম হতে চাই না। পছন্দের কাউকে পেলে তবেই বিয়ে করবো। এ নিয়ে তাড়া নেই।’

এমন সহজ স্বীকারোক্তি যে তাকেই মানায়- এর প্রমাণও এরই মধ্যেই দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। শুধু যে অভিনয় তা-ই নয়, এর পাশাপাশি সামাজিক নানা কর্মকাণ্ডের সঙ্গেও নিজেকে জড়াচ্ছেন তিনি। আর বছর জুড়েই দেশে-বিদেশে নানা রকম দাতব্য প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করা ও সমাজ সেবায় অংশ নিতে ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে বলিউডের এই বিউটি কুইনকে।

এবার তারই ধারাবাহিকতায় সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকায় রাখায় মাদার তেরেসা পুরস্কার লাভ করলেন বলিউডের গ্ল্যামার গার্ল প্রিয়াঙ্কা।

চলতি বছর সিরিয়া সফরে গিয়ে যুদ্ধাহত শরণার্থী শিশুদের পাশে দাঁড়ানোয় প্রিয়াঙ্কাকে এ সম্মানে ভূষিত করে মাদার তেরেসা ফাউন্ডেশন।

মার্কিন টিভি সিরিয়াল কোয়ান্টিকোর তৃতীয় কিস্তির কাজের সুবাদে আমেরিকায় থাকায় প্রিয়াঙ্কার হয়ে পুরস্কার গ্রহণ করেছেন তার মা মধু চোপড়া।

এসময় প্রিয়াঙ্কার মা বলেন, ‘সন্তানের কৃতিত্বে মা হিসেবে আমি গর্বিত। আর তার পক্ষ থেকে এ পুরস্কার গ্রহণ করতে পেরে সম্মানিতও বোধ করছি।’

উল্লেখ্য, ২০০০ সাল থেকে কলকাতার মাদার তেরেসা ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড কমিটি বাংলাদেশ ও ভারতের সামাজিক ও সেবামূলক বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য এই সম্মাননা দিয়ে আসছে।

শেয়ার করুন