ভূতের বিছানা সঙ্গী তিনি

সিলেটের সকাল ডেস্ক।। মানুষ নয়; ভূতের শরীরই পছন্দ করেন তিনি! এ পর্যন্ত যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন ২০টি ভূতের সঙ্গে। এমনটিই জানিয়েছেন ইংল্যান্ডের ২৭ বছর বয়সী নারী অ্যামেথিস্ট রিলম।

একজন আধ্যাত্মিক পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করেন তিনি। জানান, পুরুষ মানুষের চেয়ে ভূতই বেশি পছন্দ তার। বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ টিভি অনুষ্ঠান ‘আইটিভি দিস মর্নিং’-এ এসে এসব কথা বলেছেন রিলম।

তিনি জানান, ১২ বছর বয়সে প্রথম ভূতের সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক হয় তার। নতুন একটি বাড়িতে ওঠার পর সেখানে অদ্ভূত কোনো সত্ত্বার উপস্থিতি টের পান এই নারী।

রিলম বলেন, ‘প্রথমে এটা একটা অদৃশ্য শক্তির মতো আসে, পরে শারীরিক আকৃতি ধারণ করে। আমি আমার উরুতে চাপ এবং ঘাড়ের ওপর নিঃশ্বাস অনুভব করি। তবে আমি এতে নিরাপদ বোধ করি। আমি ভূতটির সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক করেছি। এটা ব্যাখ্যা করা কঠিন।’

একটি ভূতের সঙ্গে তিন বছর ধরে সম্পর্ক ছিল বলেও জানান রিলম। তবে তার স্বামী ফিরে আসার পর তা শেষ হয়ে যায়। এরপর থেকে আর কোনো অস্বাভাবিক সত্ত্বার সঙ্গে সম্পর্ক হয়নি রিলমের। তবে মোট ২০টি ভূতের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন তিনি।

এ ধরনের অদ্ভূত অনুভূতি শুধু রিলমের ক্ষেত্রেই ঘটেনি। এর আগে অতিপ্রাকৃত সত্ত্বার সঙ্গে দৈহিক সম্পর্কের কথা স্বীকার করেন গায়ক ববি ব্রাউন এবং কেশা। একে হ্যালুসিনেশন (বিভ্রম) হিসেবে ব্যাখ্যা করেন মনোবিজ্ঞানী টিনা রাডজিসজেবিক। তন্দ্র এবং নিদ্রার মাঝামাঝি সময়ে এ ধরনের বিভ্রম হয় বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন