সংসদ নির্বাচনে ইভিএম বাদ, থাকবে সেনাবাহিনী: নির্বাচন কমিশন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। একই সঙ্গে নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করেই ভোটগ্রহণ করবে সংস্থাটি।

সংসদ নির্বাচনে সেনাবাহিনীকে বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে ভোটে নামাতে হবে, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার করা এমন দাবির পরদিন এ অবস্থানের কথা জানিয়েছেন একজন জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কমিশনার। রোববার (১২ নভেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত সমাবেশে এমন দাবি জানিয়েছিলেন তিনি।

তার দাবির পরদিন সোমবার নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার এক দল সাংবাদিকের কাছে বলেন, আগামী নির্বাচনে সেনা মোতায়েন হবে। কিন্তু কোন প্রক্রিয়ায় কিভাবে তারা যুক্ত হবে তা সময় নির্ধারণ করে দেবে।

‘প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সঙ্গে আমরা নির্বাচন কমিশনাররা আলোচনা করেছি। সেখানে অন্য কমিশনারদেরও যে অনুভূতি দেখেছি তাতে একাদশ সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করা হবে। তবে এটা কমিশনে ‘সিদ্ধান্ত’ হয়েছে এমনটা এখনই বলা যাবে না। সময় হলেই কেবল বলা যাবে। কখনোই বলবো না যে, একাদশ সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন হবে না।’

ইভিএম ব্যবহারের মাধ্যমে ভোটগ্রহণের বিষয়ে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আগে যেসব ইভিএম দিয়ে নির্বাচন হয়েছে সেগুলোর অধিকাংশ নষ্ট। আমরা সেগুলো অকার্যকর বলে ঘোষণা দিয়েছি। আর অবশিষ্ট যেগুলো আছে, সেগুলো দিয়ে রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন করবো। বর্তমানে আমাদের যে প্রস্তুতি তা নিয়ে আগামী সংসদ নির্বাচনে ইভিএমে ভোটগ্রহণ সম্ভব নয়। তবে আমরা এমন কিছু করতে চাই, যার ফলে আগামীতে যারা আসবে তারা যেন এটি ব্যবহার করতে পারে। কেননা, ইভিএমে ভোটগ্রহণের দিকে যেতেই হবে।’

তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ

শেয়ার করুন