বিশাল জয়ে স্বরূপে ফিরল সাকিব বাহিনী

মিজান আহমদ চৌধুরী, সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম থেকে : তারকাবহুল দল নিয়ে শুরুতেই হোঁচট খেয়েছিল সাকিব আল হাসানের দল ঢাকা ডায়নামাইটস। নবাগত সিলেট সিক্সার্সের কাছে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারতে হয়েছে প্রথম ম্যাচ।

চলতি আসরের দ্বিতীয় দিনে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটান্সকে ৬৫ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে স্বরূপে ফিরল বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ঢাকার দেওয়া ২০৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ১৮.১ ওভারে ১৩৭ রানেই গুটিয়ে গেল খুলনা।

দলীয় ৮ রানেই নাজমুল হোসেন শান্তকে হারায় খুলনা। আবু হায়দার রনির বলে দারুণ ক্যাচ নেন পোলার্ড। এরপর মঞ্চে আবির্ভাব অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের। ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ হলেও নিজের প্রথম ওভারের প্রথম বলেই ফেরান কার্লোস ব্র্যাথওয়েটকে (০)। সাকিবের দ্বিতীয় ওপেনার ওয়ালটন (৩০)। অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহকে (৪) সেট হওয়ার আগেই কট অ্যান্ড বোল্ড করে নিজের দ্বিতীয় শিকার ধরেন রনি।

চার নম্বরে নেমে ১৪ বলে ২৩ রান করা রুশোকে বোল্ড করে দেন মোহাম্মদ শহীদ।

খালেদ আহমেদের বলে একই পরিণতি ঘটে আরিফুল হকের (৫)। এরপর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি রিয়াদের দল। খেলার বাকী অংশটুকু কেবল ‘নিয়মরক্ষা’ বলেই মনে হয়েছে। সাত নম্বরে নেমে ক্যারিবিয়ান তরুণ জোফরা আর্চার সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন। ঢাকার আবু হায়দার রনি ৩ উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট নেন সাকিব, সুনিল নারাইন এবং খালেদ আহমেদ।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭ উইকেটে ২০২ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে ঢাকা ডায়নামাইটস। ভালো শুরুর পর কুমার দলীয় ৩৮ রানে শফিউল ইসলামের বলে সাঙ্গাকারাকে (২০) হারায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। অপর ওপেনার এভিন লুইস আর ডেলপোর্ট দ্বিতীয় উইকেটে ১১৬ রানের বিশাল জুটি গড়েন। ৩১ বলে হাফ সেঞ্চুরির পর ৪০ বলে ৭ চার ৩ ছক্কায় ৬৬ রান করে শফিউলের দ্বিতীয় শিকার হন লুইস।

লুইসের চেয়েও আক্রমণাত্বক ব্যাটিংয়ে ২৯ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং ৫ ওভার বাউন্ডারিতে ৬৪ রান করে আবু জায়েদের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে যান ডেলপোর্ট। এরপর দ্রুত কিছু উইকেট হারায় চ্যাম্পিয়নরা। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান (১) আবারও ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে ব্র্যাথওয়েটের শিকার হন। শেষ দিকে সুনিল নারাইনের ঝড়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ঢাকার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৭ উইকেটে ২০২।

 

শেয়ার করুন